প্রকাশ্যে মোদীর দাড়ি পোড়ানোর ইচ্ছে, বাংলার সাহিত্যিক কন্যার বিরুদ্ধে এফআইআর

9017
প্রকাশ্যে মোদীর দাড়ি পোড়ানোর ইচ্ছে, বাংলার সাহিত্যিক কন্যার বিরুদ্ধে এফআইআর
প্রকাশ্যে মোদীর দাড়ি পোড়ানোর ইচ্ছে, বাংলার সাহিত্যিক কন্যার বিরুদ্ধে এফআইআর

প্রকাশ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দাড়ি পোড়ানোর ইচ্ছে; আর তার জেরে বাংলার সাহিত্যিক কন্যার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের। নিজের ফেসবুক পোস্টে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দাড়িতে; আগুন ধরিয়ে দেওয়ার কথা লিখেছিলেন; সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের কন্যা দেবলীনা মুখোপাধ্যায়। এই পোস্টের বিরুদ্ধে, লালবাজার সাইবার সেলের ক্রাইম বিভাগে; মেল করে অভিযোগ জানান বিজেপি যুব মোর্চার; সর্বভারতীয় সম্পাদক সৌরভ শিকদার।

বিজেপি যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সম্পাদক সৌরভ শিকদারের অভিযোগ; “পরিকল্পিতভাবে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর; চেষ্টা করে চলেছেন দেবলীনা”। তিনি আরও বলেছেন, “স্বনামধন্য সাহিত্যিক পিতা শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের নাম ভাঙিয়ে; দেশের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত অপমানসূচক কথা বলে বে়ড়াচ্ছেন দেবলীনা; যা একেবারেই কাম্য নয়; আর এবার তো দাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেবার ইচ্ছে প্রকাশ করে; ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছেন”। আর তাই সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের কন্যা দেবলীনা মুখোপাধ্যায় এর বিরুদ্ধে; এফআইআর দায়ের করা হল।

রবিবার দেশবাসীর কাছে ৯ মিনিট সময় চেয়ে নিয়েছিলেন; প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ছাদে বা ব্যালকনিতে মোমবাতি, টর্চ বা মোবাইলের আলো জ্বেলে; মহাশক্তির আহ্বান করার জন্য; দেশবাসির কাছে অনুরোধ করেন মোদী। যেটা পালন করল দেশবাসী। সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের কন্যা দেবলীনা মুখোপাধ্যায়; ফেসবুক পোস্ট দিয়ে লেখেন; “মোমবাতি দিয়ে মোদীর দাড়ি পুড়িয়ে দিলে কেমন হয়”?

আর এই পোস্ট দেখেই ক্ষুব্ধ হন মোদী ভক্তরা। এরপরেই বিজেপি যুব মোর্চার তরফ থেকে; থানায় এফআইআর দায়ের করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নিজের ফেসবুক পোস্ট তুলে না নিলে, বিজেপি যুব মোর্চার তরফ থেকে; দেবলীনা মুখোপাধ্যায় এর বিরুদ্ধে মামলা করার কথাও বলা হয়েছে। কলকাতা পুলিশকে এই নিয়ে; কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করেছে বিজেপি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন