আসানসোলের রানীগঞ্জ ও চিত্তরঞ্জনের একাধিক বুথে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ

341
রানীগঞ্জ ও চিত্তরঞ্জনের একাধিক বুথে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ/The News বাংলা
রানীগঞ্জ ও চিত্তরঞ্জনের একাধিক বুথে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

সকাল থেকেই উত্তেজনা রাজ্যের ৮ লোকসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন বুথে। এই মুহূর্তে আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের একাধিক বুথে বুথ দখল ও ছাপ্পা ভোটের খবর পাওয়া যাচ্ছে। রানীগঞ্জের ধামরায় ১১৩, ১৬৯ এবং ২১৮ নং বুথ থেকে বিরোধী এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ এসেছে আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারির বিরুদ্ধে। অভিযোগ তুলেছে বিজেপি।

এদিকে আসানসোলের চিত্তরঞ্জনের ২০, ২১, ২২, ৩৫ ও ৩৬ নং বুথ থেকেও বিরোধী দলের এজেন্টদের বের করে দিয়ে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ তোলা হয়েছে। কেন্দ্রীয় বাহিনী নীরব ভূমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ করছে বিরোধীরা। ভোটাদের দাবি, গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তাদের ভোট দিতে বাধা দেওয়া হয় এবং ব্যাপক হারে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার অভিযোগও তোলা হয়। তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

আরও পড়ুনঃ দুর্গাপুরের জেমুয়া স্কুলে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবিতে ভোটারদের বিক্ষোভে লাঠিচার্জ

চতুর্থ দফার লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে ১০০ শতাংশ কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগের কথা কমিশনের তরফে জানানো হয়েছিল। সেই মতো বুথে বাহিনীও নিয়োগ হয়। কিন্তু সময় গড়াতেই রাজ্যের ৮ লোকসভার বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে এজেন্টদের বের করে বুথ দখলের অভিযোগ আসছে।

অন্যদিকে আসানসোলের বারাবনিতে বাবুল সুপ্রিয়র গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখায় ভোটাররা। বারাবনির একটি বুথে পোলিং অফিসারের সাথে বাবুল সুপ্রিয় কথা কাটাকাটি হয়। ওই বুথে বিজেপি এজেন্টকে বসতে না দেওয়ার অভিযোগ জানায় বাবুল। অন্যদিকে বাবুলের বিরুদ্ধে বুথে ঢুকে গুণ্ডামির অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল।

আরও পড়ুনঃ বউয়ের খোঁজ রাখেন না, দেশের মানুষের খোঁজ কি করে রাখবেন, মোদীকে খোঁটা মমতার

এরপরেই বারাবনিতে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের বিক্ষোভের মুখে পরেন বাবুল সুপ্রিয়। ভোট শুরুর একঘণ্টা পরেই আসানসোলের বারাবনিতে একটি বুথে ঢুকে চ্যালেঞ্জ করেন বাবুল সুপ্রিয়র। তাঁর অভিযোগ বিভিন্ন বুথে তাঁর এজেন্টকে বসতে দেওয়া হয় নি। বুথে ঢুকে তিনি চ্যালেঞ্জ করেন। তর্ক শুরু হয় ওই বুথের পোলিং অফিসারের সঙ্গে।

বুথের বাইরে বেরতেই বাবুল সুপ্রিয়র গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ শুরু করে তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। তাঁর গাড়িতেও হামলা চালানো হয় বলেই অভিযোগ। ভেঙে গিয়েছে তাঁর গাড়ির কাচ। বিজেপিকে এজেন্টকে বুথে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না, এই অভিযোগ পেয়ে বুথে যান বাবুল সুপ্রিয়। সেখানে অন্যান্য দলের এজেন্টদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন।

আরও পড়ুনঃ শুরু হল চতুর্থ দফার ভোট, রণক্ষেত্র দুর্গাপুরের জেমুয়া ভাদুবালা বিদ্যাপীঠ স্কুল চত্বর

বাবুল সুপ্রিয় গাড়ির কাঁচ ভেঙে দেওয়া হয়। সংবাদমাধ্যমের গাড়ির উপরে হামলা করা হয়েছে। বাবুল বলেন,”আমি জানতাম, প্রথম যেখানে যাব, সেখানেই গণ্ডগোল করবে। ওরা আমাকে আটকাতে চাইছে। কিন্তু সেটা পারবে না”। একটি বুথেই তাঁকে আটকে রাখার চেষ্টা করছে তৃণমূল, এমনটাই অভিযোগ বাবুলের। সব মিলিয়ে উত্তপ্ত আসানসোল।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন