কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে, মমতার করোনা বিধিনিষেধ ভাঙলেন নির্মল মাঝি

6699
কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মমতার করোনা বিধিনিষেধ ভাঙলেন নির্মল মাঝি
কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মমতার করোনা বিধিনিষেধ ভাঙলেন নির্মল মাঝি

মমতার করোনা বিধিনিষেধ উড়িয়ে; মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ফের দাপট তৃণমূল নেতা নির্মল মাঝির। রাখী উৎসব উপলক্ষে, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে; রাজ্য সরকারের করোনা বিধিনিষেধ ভাঙলেন তৃণমূল বিধায়ক নির্মল মাঝি। মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনেই; তারস্বরে মাইক বাজিয়ে রাখিবন্ধন উৎসব পালন করা হয় রবিবার। আর সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, চিকিৎসক ও বিধায়ক; তথা রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিলের সভাপতি নির্মল মাজি। করোনা বিধি ভেঙে, স্বাস্থ্যবিধি শিকেয় তুলে নাচে-গানে জমজমাট আসর বসল; রাজ্যের প্রথম সারির সরকারি কোভিড হাসপাতাল চত্বরে।

কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে, এদিনের রাখিবন্ধন উৎসব পালন নিয়ে; তৈরি হয়েছে জোরদার বিতর্ক। বিধি ভেঙে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে নাচ গানের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে, রাখী বন্ধন উৎসব পালন; বেশ কয়েকটি প্রশ্ন উসকে দিয়েছে রাজ্যবাসির মনে। বিরোধী দলের নেতারাও প্রশ্ন তুলেছেন; গুরুত্বপূর্ণ সরকারি হাসপাতাল চত্বরে কোভিড বিধি না মেনে উৎসব হচ্ছে; অথচ কেন বন্ধ রাজ্যের রেল ও স্কুল কলেজ?

আরও পড়ুন; ‘সেকুলার’ বাঙালি বুদ্ধিজীবী, কাবুল থেকে কোনরকমে বেঁচে ফিরেই তালিবানের প্রশংসা

রাখী উৎসব উদযাপনে উপস্থিত; তৃণমূল বিধায়ক তথা রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিলের সভাপতি নির্মল মাজি। সেখানে তাঁর মুখে ছিল না মাস্ক; অনেক ডাক্তারের মুখেও ছিল না মাস্ক। এমনকি সামাজিক দুরত্ব বিধিও; মানা হয়নি সেই অনুষ্ঠানে। সরকারি নিষেধাজ্ঞায় বলা আছে, ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নেওয়া থাকলেও পড়তে হবে মাস্ক; মানতে হবে দূরত্ববিধি। কিন্তু সরকারি অনুষ্ঠানে শাসক দলের নেতার দাপটে; উধাও সব বিধিনিষেধ।

আরও পড়ুন; কাবুলিওয়ালাকে বিয়ে করে ধর্ম পাল্টে সঙ্ঘামিত্রা হন সোনা খান, এবার ফিরতে চান ভারতে

রবিবার সকালে রাখিবন্ধন উৎসব উপলক্ষে হাসপাতাল চত্বরে; উচ্চস্বরে মাইক বাজিয়ে মেডিক্যাল কলেজের স্বাস্থ্যকর্মী; ও পড়ুয়াদের নৃত্য পরিবেশন করতে দেখা যায়। চিকিৎসক মহলের একাংশের প্রশ্ন; এ ভাবে কি কোনও হাসপাতালে মাইক বাজিয়ে অনুষ্ঠান উদযাপন করা যায়? যেখানে রাজ্যে যখন এখনও কোভিড বিধিনিষেধ; চালু আছে। নিয়ম কি শুধু সাধারণ মানুষের জন্য; উঠেছে প্রশ্ন। শাসক দলের নেতা হলেই কি; সব নিয়মকানুন থেকে ছাড়; সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশ্ন তুলেছেন বাংলার আমজনতা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন