সাতদিনও হয় নি, মমতার পথশ্রী প্রকল্পে কাটমানি নিয়ে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব শুরু তৃণমূলের

2188
সাতদিনও হয় নি, মমতার পথশ্রী প্রকল্পে কাটমানি নিয়ে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব শুরু তৃণমূলের/The News বাংলা
সাতদিনও হয় নি, মমতার পথশ্রী প্রকল্পে কাটমানি নিয়ে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব শুরু তৃণমূলের/The News বাংলা

সাতদিনও হয় নি, পথশ্রী প্রকল্পে কাটমানি নিয়ে; গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব শুরু তৃণমূলের। পথশ্রী প্রকল্পে কাটমানি খাওয়া নিয়ে; তৃণমূলের দুই গোষ্ঠী মুখোমুখি হয়ে গেল। সপ্তাহখানেক আগেই, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী উত্তরবঙ্গ সফরে; পথশ্রী প্রকল্পের সূচনা করেছিলেন। সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই; মমতা ব্যানার্জীর সেই সাধের পথশ্রী প্রকল্প নিয়ে; কাটমানি খাওয়ার অভিযোগ, তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে। তাও আবার সেই অভিযোগ করলেন; ওই গ্রাম পঞ্চায়েতেরই তৃণমূল সদস্য। মমতা ব্যানার্জী যেদিন এই প্রকল্পের সূচনা করেছিলেন, সেদিন বলেছিলেন এই প্রকল্প কেউ আটকালে বা কাটমানি চাইলে; তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এখন দেখার এটাই; এই অভিযোগের পর কি হয়।

আরও পড়ুনঃ ঢালাই রাস্তার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঘেঁষ রাস্তা, নন্দীগ্রামে পথশ্রী অভিযানে ভাঙচুর, তৃণমূল নেতাদের আটক

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর নতুন এই প্রকল্পে, কাটমানি খাওয়া নিয়ে; তৃণমূলেরই পঞ্চায়েত প্রধান আর পঞ্চায়েত সদস্যের মধ্যে তুমুল গণ্ডগোল বেঁধেছে। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গোয়ালতোড়ে। পথশ্রী প্রকল্পে নিম্নমানের রাস্তা তৈরি হওয়া নিয়ে; তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধান আর পঞ্চায়েত সদস্যের মধ্যে; বচসা শুরু হয়ে যায়। তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য, পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধেই; অভিযোগ করে বলেন যে, তিনি বিজেপির সঙ্গে যোগসাজেশ করে; খারাপ রাস্তা তৈরি করে কাটমানি খাচ্ছেন।

আরও পড়ুনঃ তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রার্থী, বিধানসভা ভোটের আগে নতুন দল তৈরির ঘোষণা পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির

অন্যদিকে, পঞ্চায়েত সদস্যের সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে; তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধান রুমা মান্না বলেন; “আমি মহিলা বলেই আমাকে; এভাবে হেনস্থা করছেন উনি”। তৃণমূলের দুই নেতার মধ্যে, বেঁধে যাওয়া এই গণ্ডগোলকে কেন্দ্র করে; সোমবার দুপুরে পাথরপাড়া পঞ্চায়েত অফিসে; ধুন্ধুমার কাণ্ড হয়। যদিও, গ্রামবাসীরা পঞ্চায়েত সদস্যের পাশে দাঁড়িয়ে; খারাপ রাস্তা তৈরি হচ্ছে ও কাটমানি খাওয়া চলছে বলে অভিযোগ করেন।

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি জানান; “আমরা বিষয়টি জানতে পেরেছি। আমরা এই নিয়ে তদন্ত করছি। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে; কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে”। এই ঘটনার পর বিজেপির জেলা সভাপতি বলেন; “প্রকল্প শুরু হতে না হতেই; কাটমানি খাওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। আর জানাজানি হতেই, বিজেপির ঘাড়ে কীভাবে দোষ চাপান যায়; সেটার পথ খুঁজছে তৃণমূল”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন