কোন শক্তিই কাশ্মীরি পণ্ডিতদের কাশ্মীরে ফেরা থেকে আটকাতে পারবে না

2257
শক্তিই কাশ্মীরি পণ্ডিতদের কাশ্মীরে ফেরা থেকে আটকাতে পারবে না/The News বাংলা
শক্তিই কাশ্মীরি পণ্ডিতদের কাশ্মীরে ফেরা থেকে আটকাতে পারবে না/The News বাংলা

কাশ্মীরি পণ্ডিতরা নিজেদের বাড়ি ফিরবেই; কেউ তাদের কাশ্মীরে ফেরা থেকে আটকাতে পারবে না। কাশ্মীরে; বর্তমান বাসিন্দাদের মতই; কাশ্মীরি পণ্ডিতদের সমান অধিকার আছে নিজেরদের ভূখণ্ডে বসবাস করার। ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এক জনসভা থেকে এই কথা ঘোষণা করে দিলেন।

কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আরও বলেন; কোন শক্তিই কাশ্মীরি পণ্ডিতদের কাশ্মীরে ফেরা থেকে আটকাতে পারবে না।

জনসভা থেকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং পাকিস্থানের উদ্দেশে কড়া হুমকি দেন। নাম না করে ইমরান সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বার্তা দেন; “ভারতের ক্ষতি করলে; তাঁকে আমরা শান্তিতে থাকতে দেব না। আমরা কারুর গায়ে হাত দিই না; কিন্তু আমাদের দেশের ক্ষতি করতে এলে আমরা তদের শান্তি কেড়ে নিতে পিছু পা হই না”।

কাশ্মীরে মুসলিম মৌলবাদীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে; ১৯৯০ থেকে শুরু করে ১৯৯২ সালে কাশ্মীরি পণ্ডিতরা উপত্যাকা ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছিল। যারা নিজেদের বাসস্থান ছাড়তে রাজি ছিল না; তাদের নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয়েছিল। সেই ঘটনার উল্লেখ করে রাজনাথ সিংহ দাবি করেন; আগামী দিনে কোন মৌলবাদী শক্তি; কাশ্মীরি পণ্ডিতদের কাশ্মীরে ফেরা থেকে আটকাতে পারবে না। সঙ্গে তিনি আরও বলেন; মোদী সরকার কাশ্মীরি পণ্ডিতদের বাড়ি ফেরাতে বদ্ধ পরিকর।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন প্রসঙ্গে রাজনাথ সিং বলেন; বিরোধীরা সাধারন মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে; এই আইন কোন মানুষের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করবে না। এই আইন ধর্মীয় কারণে নিপীড়িত মানুষদের সাহায্য করার জন্যই আনা হয়েছে।

ইতিমধ্যে; কেরালা; পাঞ্জাব; পশ্চিমবঙ্গ সহ বেশ কিছু রাজ্যে সিএএ প্রয়োগে অস্বীকার করেছে। বিধানসভায় প্রস্তাবও পাস করিয়ে নিয়েছে। এই প্রসঙ্গে প্রতিরক্ষা রাজনাথ সিং বলেন; সিএএ কেন্দ্রীয় আইন। এই আইন মানতে ভারতের জনগন বাধ্য। কংগ্রেস ও আরও কিছু বিরোধীরা সাধারন মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। রাজনীতি করতে গিয়ে বিরোধীরা দেশের প্রতি কর্তব্য ভুলে গেছেন বলে মন্তব্য করেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন