নেশাড়ুদের কাছে দারুণ খবর, ভারতে আইনি হচ্ছে গাঁজার নেশা

1353
ভারতে আইনি হচ্ছে গাঁজার নেশা/The News বাংলা
ভারতে আইনি হচ্ছে গাঁজার নেশা/The News বাংলা

বহু প্রতীক্ষার পর; দেশে আইনত বৈধ হতে চলেছে গাঁজা। বর্তমানে গাঁজা ব্যবহার অপরাধ ভারতে। খুব তাড়াতাড়িই; গাঁজার উপকারিতা ও তার বৈধতা নিয়ে একটি আবেদন পেশ করা হবে দিল্লী হাই কোর্টে। এই বিষয়ে; খতিয়ে দেখবে বলে জানায় হাই কোর্ট। যদিও; ইতিমধ্যেই বহু দেশেই গাঁজা বৈধ। এবার হয়তো ভারতেও বৈধ হতে চলেছে গাঁজা।

১৯৮৫ সালের মাদকদ্রব্য ও সাইকোট্রপিক পদার্থ আইনের অধীনে গাঁজাকে নিয়ে আসা হয়। বিভিন্ন বিপজ্জনক ওষুধের সাথে গাঁজাকে অবৈধ করে দেওয়া হয় ভারতে। কিন্তু এইভাবে গাঁজাকে অবৈধ করা অনেকেই অন্যায় বলেছিলেন। গাঁজা অনেক ক্ষেত্রে খুব কার্যকারী। এই পদক্ষেপটি ‘অবৈজ্ঞানিক’, ‘খামখেয়ালী’ ও ‘অযৌক্তিক’।

আরও পড়ুনঃ একুশে জুলাই এর আগে আবার বাংলায় জুড়ে ডিম্ভাত

বিচারপতি জি এস সিস্তানিয়া ও জ্যোতি সিংয়ের বেঞ্চ বর্তমানে গাঁজার আইনী অবস্থান সম্পর্কে সবিসস্তারে জানতে চেয়েছেন। এছাড়াও এই বেঞ্চ মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও তার ক্রমশ বেড়ে চলা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

আরও পড়ুনঃ মমতার প্রিয় কাননে; ঘাসের জায়গায় ফুটছে পদ্মফুল

বেঞ্চ বলেছেন; যে এই বিষয়ে কোনরকম সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সমস্ত স্টেকহোল্ডারদের কথা শোনা হবে। তাঁরা আরও জানায়; কোর্ট এখনও কোন নোটিস দেয়নি আবেদন পত্রটিতে। এরকম একটা স্পর্শকাতর ঘটনার ক্ষেত্রে তাঁরা কোনরকম তাড়াহুড় করবে না বলে জানায় বেঞ্চ।

আবেদনপত্রে এটাও বলা হয় যে; বাণিজ্যিক ভাবে গাঁজার চাষ বৈধ হলে; কৃষকরা সারা বিশ্ব জুড়ে সুবিধা পাবে। এ প্রসঙ্গে বলা হয়; ১৯৮৫ সালে সরকার কোন কিছুই পর্যবেক্ষণ না করে গাঁজা নিষিদ্ধ করে দেয়। দেশে গাঁজা ব্যবহারের ইতিহাস ও তার সুবিধা যদি দেখতেন তাহলে এই সিদ্ধান্ত নিতেন না।

আরও পড়ুনঃ মোদীর পাঠান রাজ্যপালকে স্বাগত জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

গাঁজা শুধু মাত্র মাদকদ্রব্য হিসাবে নয়; ফাইবারবোর্ড, আসবাবপত্র, খাবার, পানীয়, প্রসাধনী এবং ব্যক্তিগত কিছু জিনিস তৈরিতেও ব্যবহার করা হয়। তাই সব দিক বিচার করেই গাঁজার বৈধতা দেওয়া উচিত।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন