জেলায় বিধায়ক খুন, কলকাতায় অফিসের পাশে মৌন মিছিল বিজেপির, বিরোধী নেত্রী মমতা হলে……

1207
জেলায় বিধায়ক খুন, কলকাতায় অফিসের পাশে মৌন মিছিল বিজেপির, বিরোধী নেত্রী মমতা হলে......
জেলায় বিধায়ক খুন, কলকাতায় অফিসের পাশে মৌন মিছিল বিজেপির, বিরোধী নেত্রী মমতা হলে......

জেলায় বিজেপি বিধায়ক খুন; এমনটাই অভিযোগ রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপির। কিন্তু সারাদিন কি করল; রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল? ফেসবুকে একের পর পোস্ট দিলেন নেতা নেত্রীরা। টুইটারে প্রতিবাদে ভরিয়ে দিলেন। রাজ্য বিজেপির সদর দফতর, মুরলীধর সেন রোড থেকে; যোগাযোগ ভবন পর্যন্ত মৌন মিছিল করেন; রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু; মহিলা মোর্চার সভাপতি অগ্নিমিত্রা পাল; কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা-সহ প্রমুখরা। মিছিল শেষে নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিতে; রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গেও দেখা করেন তাঁরা। তারপর ডেকে দিলেন; উত্তরবঙ্গ বনধ। ব্যাস। বিরোধী নেত্রী মমতা হলে………

আরও পড়ুনঃ এগিয়ে বাংলায় বিধায়ক-কেও খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া যায়, সাধারণ মানুষের হাল কি

বিরোধী নেত্রী মমতা হলে…… দুপুরের মধ্যেই উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদে হাজির হয়ে যেতেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর নেতার মৃতদেহ নিয়ে; ওখানেই ধর্নায় বসে যেতেন। তারপর সেই মৃতদেহ কলকাতায় নিয়ে এসে; এমন আন্দোলন করতেন যে; শুধু রাজ্য কেন, গোটা দেশ জানত যে; বাংলায় এক বিধায়ক মার্ডার হয়েছেন। বিরোধী নেত্রী মমতার কাছ থেকে; বিরোধী রাজনীতিটা শিখুক; সোমবার এমন বক্তব্যই জানিয়েছেন; গেরুয়া শিবিরের অনেকেই।

আরও পড়ুনঃ সাধারণ মানুষও বুঝতে পারছে বিধায়ক খুন, ময়নাতদন্তের আগেই আত্মহত্যা বলল বাংলার পুলিশ

হেমতাবাদের বিজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায়; আগামিকাল মঙ্গলবার, ১২ ঘণ্টার উত্তরবঙ্গ বনধের ডাক দিল বিজেপি। পাশাপাশি বুধবার রাজ্যের থানাগুলি ঘেরাও; দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দ্বারস্থ হওয়া-সহ একগুচ্ছ কর্মসূচি নিচ্ছে গেরুয়া শিবির। কিন্তু আজই হেমতাবাদ গিয়ে; কেন আন্দোলন শুরু করল না রাজ্য বিজেপি? রাজ্য সরকার আটকে দেবে বলে; করোনার দোহাই দিয়ে কেন জেলায় গিয়ে আন্দোলন করেন না রাজ্য নেতারা; উঠছে প্রশ্ন জেলা থেকেই।

আরও পড়ুনঃ চার বছরের ছেলে হারাল মা-কে, সামনে থেকে লড়াই করে, বাংলার করোনা শহিদ দেবদত্তা রায়

সোমবার সকালে বিধায়কের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই; রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে; সোশাল মিডিয়ায় সরব হয়েছে বিজেপির রাজ্যস্তরের নেতা নেত্রীরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে; ‘গুন্ডারাজ’-এর অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা। একই সঙ্গে মৃত্যুর ঘটনার তদন্তভার; সিবিআইকে দেওয়ারও দাবি তোলা হয়। দাবী আন্দোলন সবটাই; মিডিয়া ও সোশাল মিডিয়াতে। হেমতাবাদে স্পটে গিয়ে নয়। আর তাই, বিজেপির দাবী পত্রপাঠ উড়িয়ে দিয়ে; সিআইডির হাতেই তদন্তভার সঁপেছে রাজ্য।

আরও পড়ুনঃ পুরুলিয়ার কায়দায় খুন, একসময়ের মমতার মত সিবিআই তদন্ত চাইলেন দিলীপ

এর আগেও দু দুবার পুরুলিয়ায়; বিজেপি কর্মীকে ফাঁসি দিয়ে ঝুলিয়ে; মেরে দেবার অভিযোগ উঠেছিল। দুবারই আন্দোলন রাজ্য স্তরে; তুলে আনতে পারে নি বিজেপি। বিরোধী নেত্রী থাকার সময়; বার বার বিভিন্ন জেলা থেকে কলকাতায় নিহত দলীয় সমর্থকদের দেহ এনে; বিরোধী রাজনীতি করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের সমর্থকদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। কেন মমতা-কে দেখে; বিরোধী আন্দোলন শিখছে না বিজেপি রাজ্য নেতারা? জেলায় জেলায় প্রশ্ন তুলেছেন; বিজেপি কর্মী সমর্থকরাই।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন