‘আতঙ্কিত হবেন না’, এটাই ভুল প্রচার সরকারের, আতঙ্কিত হওয়া দরকার

636
'আতঙ্কিত হবেন না', এটাই ভুল প্রচার সরকারের, আতঙ্কিত হওয়া দরকার
'আতঙ্কিত হবেন না', এটাই ভুল প্রচার সরকারের, আতঙ্কিত হওয়া দরকার

‘আতঙ্কিত হবেন না’; এটাই ভুল প্রচার সরকারের। আতঙ্কিত হওয়া দরকার; আতঙ্কে না থাকলে সচেতন হবে না এই বাংলা। মানতে কষ্ট হলেও এটাই সত্যি; এখনও সচেতন নয় পশ্চিমবঙ্গ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বারবার বলা সত্ত্বেও; আজও সচেতন নয়; আমাদের বাংলা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বারবার প্রচার সত্ত্বেও; বাংলা আজও কোনোরকম গুরুত্ব দেয় নি; দিচ্ছে না করোনা ভাইরাসকে। ভয় না পেলে কি সচেতন হবে না বাঙালি? উঠে গেছে প্রশ্ন। বিপদে না পরলে কি; একদম সচেতন হবো না আমরা?

‘আতঙ্কিত হবেন না’; এটাই ভুল প্রচার সরকারের; আতঙ্কিত হওয়া দরকার। বলছেন বাংলার সচেতন মানুষ। করোনা কতটা ভয়ঙ্কর; তা জানা দরকার মানুষের। করোনা কতটা আতঙ্কের; সেটাই বুঝতে হবে সবাইকে। কিন্তু মানুষ ততক্ষণ বুঝবে না; যতক্ষণ না তাঁরা আতঙ্কিত হবেন। তাই ‘আতঙ্কিত হবেন না’; এটাই ভুল প্রচার সরকারের; বলছে বাংলার মানুষ।

গোষ্ঠী সংক্রমণ হলে উজাড় হয়ে যাবে বাংলা, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মানছে না মানুষ

চীনা ভাইরাস এর এই ভয়াবহতায়; একটা জিনিস পরিষ্কার বোঝা গেছে। তা হল- “ডর আচ্ছা হ্যায়”। এবং “ডরনা জরুরী হ্যায়”। কারণ-১. যে ছেলে মেয়ে বাপ মা কে; ছোটো থেকে ভয় পায় না সে বখাটে হয়। ২. যে ছেলে মেয়ে পাড়ার গুরুজন, বয়স্ক; নিজেদের শিক্ষকদের ভয় পেতে শেখে না; সে বড় হয়ে বেয়াদোপ হয়। ৩. যে ছেলে ধর্ম সংস্কার-কে ভয় না পেয়ে বড়ো হয়; সেই সমাজে বেলেল্লাপনায় অভস্ত হয়। বলছে বাংলার সচেতন মানুষ।

আটকানো গেল না মহামারী, ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত

আমরা নিজেরা সচ্ছতায় অভ্যস্ত হতে পারিনি। এদিক ওদিক থুতু ফেলা, নাক খোটা, রুমাল ছাড়া হাচি-কাশি; কুকুরের মতো যেখানে সেখানে দাড়িয়ে মোতা; এ সব থেকে বিরত করার উপায়; বোঝানো নয়, বরং ভয় চাই। আর তাই ডর আচ্ছা হ্যায়। আতঙ্ক না হলে; শোধরাবে না বাংলার বাসিন্দারা।

কাউকে বগল বাজাতে দেবেন না, কোন নেতা নেত্রী করোনায় নিজের টাকা দেন নি

তাই বাংলার মানুষের কাছে; যতক্ষন না বিপদ সরাসরি পৌঁছাবে; ততক্ষণ সচেতন হবে না মানুষ। আতঙ্কে না পরলে; সাবধান হবে না পশ্চিমবঙ্গের অধিকাংশ মানুষ। তবে ততদিনে অনেক দেরি হয়ে যাবে না তো? মৃত্যু কিন্তু সাবধান হবার কোন সুযোগ দেবে না। তাই, আতঙ্কিত হওয়া দরকার। তবেই সতর্ক ও সচেতন হবে মানুষ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন