সব পুজো প্যান্ডেলই ‘নো এন্ট্রি জোন’, জনস্বার্থ মামলায় রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট

1672
পুজো উদ্যোক্তাদের আবেদনে সাড়া দিল না হাইকোর্ট, বাংলার পুজো এবার দর্শকশুন্য
পুজো উদ্যোক্তাদের আবেদনে সাড়া দিল না হাইকোর্ট, বাংলার পুজো এবার দর্শকশুন্য

সব পুজো প্যান্ডেলই ‘নো এন্ট্রি জোন’; জনস্বার্থ মামলায় রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট। করোনা সংক্রমণের মধ্যে, দুর্গাপুজোর অনুমতি নিয়ে; দায়ের করা জনস্বার্থ মামলার রায়ে; কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে; এ বছর রাজ্যের ছোটো বড় সমস্ত পুজো প্যান্ডেলই; ‘নো এন্ট্রি জোন’। কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়েছে; দুর্গা পুজোর সঙ্গে বাঙালির আবেগ জড়িত রয়েছে। তাই পুজোয় মণ্ডপে দর্শনার্থীদের প্রবেশাধিকার থাকলে; সেখানে ভিড় জড়ো হবেই; তাই সব পুজো মণ্ডপ; এবার ‘নো এন্ট্রি জোন’।

প্যান্ডেল এরিয়ায় থাকবে; বাফার জোন ৷ মন্ডপে শুধু ঢুকতে পারবেন; পুজো উদ্যোক্তারাই। তাও একসঙ্গে ২৫ জনের বেশি উদ্যোক্তা; মণ্ডপে থাকতে পারবেন না বলে রায়ে জানিয়েছে আদালত। পুজোর ভিড়ে করোনা সংক্রমণে বিস্ফোরণের আশঙ্কায়; ঐতিহাসিক রায় বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চের।

আরও পড়ুনঃ বেড নেই সরকারি বেসরকারি হাসপাতালে, মুখ্যমন্ত্রী মমতার কথায় করোনাকে লকডাউন করে ঠাকুর দেখতে মানুষের ঢল

করোনা আবহে পুজোয় স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে; আশঙ্কা প্রকাশ করেছিল রাজ্যের চিকিৎসক মহল। রাজ্যে ভিড় নিয়ন্ত্রণ নিয়ে; কলকাতা হাইকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা করা হয়। শুনানিতে জানতে চাওয়া হয়; ভিড় নিয়ন্ত্রণের রূপরেখা নিয়ে কি কি ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য সরকার। হাইকোর্টের তরফে বলা হয়েছে; সরকারের তরফে যে গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে তাতে সদিচ্ছা থাকলেও; ভিড় আটকানো রাজ্য সরকারের পক্ষে সম্ভব না। পুজোর আগেই রাস্তায় ও বিভিন্ন মণ্ডপে মানুষের ভিড় দেখে; আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তাঁরা।

আরও পড়ুনঃ বাংলার বাড়ছে করোনা পজিটিভ রেট, ঘুম উড়েছে স্বাস্থ্য কর্তাদের, পুজো উদ্বোধনে মুখ্যমন্ত্রী

হাইকোর্ট জানিয়েছে; রাজ্যে ৩ হাজার পুজো মণ্ডপ আছে। আর পুলিশ আছে ৩০ হাজার। বাড়তি হলেও; ৩২ হাজার হতে পারে। ফলে ট্রাফিক কন্ট্রোল; রোজকার বিভিন্ন তদন্তের কাজ করে; তিন হাজার পুজোমন্ডপ ভিড় সামলানো পুলিশের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই, সব পুজো প্যান্ডেলই; এবার ‘নো এন্ট্রি জোন’ ঘোষণা করা হল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন