ঘুরছে অর্থনীতি, করোনা আবহেও ৪৬ শতাংশ রফতানি বাড়াল মোদী সরকার

352
ঘুরছে অর্থনীতি, করোনা আবহেও ৪৬ শতাংশ রফতানি বাড়াল মোদী সরকার
ঘুরছে অর্থনীতি, করোনা আবহেও ৪৬ শতাংশ রফতানি বাড়াল মোদী সরকার

ঘুরছে অর্থনীতি, করোনা আবহেও; ৪৬ শতাংশ রফতানি বাড়াল মোদী সরকার। কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রকের প্রাথমিক তথ্য অনুসারে; ইঞ্জিনিয়ারিং, রত্ন জুয়েলারী ও পেট্রোলিয়াম পণ্য খাতে উল্লেখযোগ্য রফতানি হার বাড়ার কারণে; জুনের দুই সপ্তাহেই অর্থাৎ ১-১৪ জুন; ভারতের রফতানি বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় ৪৬ শতাংশ। ভারতের রফতানি বেড়ে হয়েছে; ১৪.৬ বিলিয়ন ডলার ($14.06 Billion)। অবশ্য আমদানিও এই সময়ের মধ্যে; ৯৮.৩৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১৯.৫৯ বিলিয়ন ডলার ($19.59 Billion) হয়েছে।

গত এক বছরে, করোনার কারণে; রীতিমতো ধাক্কা খেয়েছিল ভারতীয় অর্থনীতি। গতবছর অর্থনীতির বেহাল অবস্থার জেরে; কাজ হারিয়েছিলেন কোটি কোটি মানুষ। এমনকি দারিদ্রসীমার নীচে চলে গিয়েছিল; কোটি কোটি পরিবার। শুধু তাই নয়, জিডিপিও; নেমে গিয়েছিল মাইনাসে। যার জেরে অর্থনীতির এই বড় ক্ষতি; সামাল দেওয়া ছিল রীতিমতো চ্যালেঞ্জিং কাজ। তবে এবার কিছুটা হলেও; স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার সুযোগ পেল ভারত।

আরও পড়ুনঃ ভারতের ‘জেমস বন্ড’ ৭৬ বছরের অজিত ডোভালকে কেন ছাড়তে চায় না মোদী সরকার

চলতি অর্থবছরের এপ্রিল-মে মাসে; ভারতের রফতানি বেড়েছে ৬২.৮৯ বিলিয়ান ডলারে ($62.89); যা গত বছরের একই সময়ের ২৯.৪১ বিলিয়ন ডলার ছিল। কেন্দ্রীয় বানিজ্য মন্ত্রক সূত্রে প্রকাশিত এক তথ্য জানিয়েছে; জুনের ১ থেকে ১৪ তারিখের মধ্যে ভারত থেকে রফতানির হার বেড়েছে; প্রায় ৪৬.৪৩ শতাংশ অর্থাৎ প্রায় ১৪ বিলিয়ন ডলার। একথা ঠিক যে এর; সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে বিদেশ থেকে আমদানিও। বিদেশ থেকে আমদানি হার বেড়েছে; প্রায় ৯৮.৩৩ শতাংশ। যার পরিমাণ; প্রায় ১৯.৫৯ বিলিয়ন ডলার।

আরও পড়ুনঃ নিষিদ্ধ দ্বীপের বাঙালি রানী, অসম্ভবকে সম্ভব করা বাঙালি নারী

তথ্য অনুযায়ী মূলত রফতানির পরিমাণ বেড়েছে; জুয়েলারি, ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টর, পেট্রোপণ্য, রত্ন প্রভৃতি ক্ষেত্রে। গতবছর করোনার কারণে লকডাউন থাকায়; আমদানি-রফতানি ছিল প্রায় সম্পূর্ণ বন্ধ। যার জেরে আরও বেশি ক্ষতির সম্মুখীন; হতে হয়েছে ভারতীয় অর্থনীতিকে। তবে তা ধীরে ধীরে ফের একবার উন্নতির পথে এগোচ্ছে; বলেই মত বানিজ্য মন্ত্রকের। এই বৃদ্ধি কতটা ধরে রেখে উন্নতি করা যায়; সেটাই এখন দেখার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন