কৃষি বিল ২০২০, সত্য মিথ্যার জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

1125
কৃষি বিল ২০২০, সত্য মিথ্যার জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী, দেখে নিন একনজরে/The News বাংলা
কৃষি বিল ২০২০, সত্য মিথ্যার জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী, দেখে নিন একনজরে/The News বাংলা

কৃষি বিল নিয়ে সংসদ ছাড়িয়ে; এখন সারা দেশের পরিবেশ উত্তপ্ত। বিরোধী পক্ষের তীব্র প্রতিরোধের মধ্যেই; সংসদে প্রধানমন্ত্রী এই বিল উপস্থাপন করেন; সংখ্যাধিক্যের জেরে লোকসভা ও রাজ্যসভাতে পাশ হয়ে যায় কৃষি বিল ২০২০। এরপরেই বিরোধীদের পাশাপাশি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা সহ বেশ কিছু রাজ্যের কৃষকরাও; এই বিল নিয়ে সরব প্রতিবাদ করছেন। সরকার কেন কৃষি নিয়মকানুনে পরিবর্তন এনেছে; তা নিয়ে কৃষকদের মনে অনেক সন্দেহ রয়েছে। এই সন্দেহগুলি নিরসন করতে; এবার আসরে নামলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী মোদী। সবিস্তারে ব্যাখ্যা করে বুঝিয়ে দিয়েছেন যে; আসলে এতে কৃষকদেরই লাভ হবে। মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন বিরোধীরা। কি বললেন মোদী; দেখে নিন একনজরে।

আরও পড়ুনঃ ভারতকে আগে সেনা সরাতে হবে শর্ত দিল চিন, পাল্টা চাল ভারতীয় সেনার

ন্যূনতম সহায়ক মুল্য বা এমএসপির কী হবে?
ভ্রান্ত ধারণা: কৃষকদের বিল আসলে, কৃষকদের ন্যূনতম সহায়তার মূল্য না দেওয়ার ষড়যন্ত্র। সমস্যায় পরবে কৃষকরা।
নরেন্দ্র মোদী: কিষাণ বিলের সঙ্গে ন্যূনতম সমর্থন মূল্যের; কোনও সম্পর্ক নেই। এমএসপি দেওয়া হচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও দেওয়া হবে।

কৃষি মান্ডিগুলির কী হবে?
ভ্রান্ত ধারণা: এখন কৃষি মান্ডিগুলি নষ্ট হয়ে যাবে; সেগুলির কোন অস্তিত্ব থাকবে না।
নরেন্দ্র মোদী: বাজার ব্যবস্থা একই থাকবে। কৃষি বিলের জন্য; কৃষি মান্ডি নষ্ট হবে না।

বিল কি কৃষকবিরোধী?
ভ্রান্ত ধারণা: বিল কৃষকদের বিরুদ্ধে।
নরেন্দ্র মোদী: নতুন কৃষি বিলে; কৃষকদের দেওয়া হয়েছে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা। এখন কৃষকরা যে কোনও জায়গায়, যে কোন রাজ্যে; যে কোনও অঞ্চলে তাদের ফসল বিক্রি করতে পারবেন। এটি ‘ওয়ান নেশন ওয়ান মার্কেট’ প্রতিষ্ঠা করবে। বড় বড় খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ সংস্থাগুলির সঙ্গে; অংশীদারিত্বের মাধ্যমে, কৃষকরা আরও বেশি মুনাফা অর্জন করতে সক্ষম হবেন।

বড় সংস্থাগুলি কী শোষণ করবে?
ভ্রান্ত ধারণা: বড় সংস্থাগুলি চুক্তির নামে; কৃষকদের শোষণ করবে।
নরেন্দ্র মোদী: চুক্তির মাধ্যমে ফসল ক্রয় হওয়ায়; কৃষকদের একটি নির্দিষ্ট দাম দেবে বড় বড় সংস্থাগুলি। তবে কৃষকের এতে কোন বাধ্যবাধকতা নেই। কৃষক সেই চুক্তি ইচ্ছামতো; চালাতে বা বাতিল করতে পারবেন। চুক্তি প্রত্যাহার করলে কৃষক মুক্ত হবেন; কিন্তু তার কাছ থেকে চুক্তি বাতিল বাবদ; কোনও শুল্ক বা অর্থ নেওয়া হবে না।

কৃষকরা কি তাদের জমি হারাবেন?
ভ্রান্ত ধারণা: কৃষকদের জমি পুঁজিপতিদের দেওয়া হবে।
নরেন্দ্র মোদী: বিলে পরিষ্কারভাবে বলা হয়েছে যে; কৃষকদের জমি বিক্রয়, ইজারা ও বন্ধক; পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। চুক্তি হবে ফসলের সঙ্গে; জমির সঙ্গে নয়।

কৃষকরা কি ক্ষতির মুখে?
ভ্রান্ত ধারণা
: কৃষি বিল থেকে বড় বড় কর্পোরেট সংস্থাগুলি, সুবিধাভোগ করবে; কৃষকরা অসুবিধায় পড়বে।
নরেন্দ্র মোদী: বড় বড় কর্পোরেশনের পাশাপাশি; বেশ কয়েকটি রাজ্যে কৃষকরা আখ, চা এবং কফির মতো ফসল বিক্রি করতে পারবেন। এখন ক্ষুদ্র কৃষকরা; আরও বেশি সুবিধা পাবে এবং তারা প্রযুক্তি ও দৃঢ় মুনাফায় আস্থা অর্জন করবে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন