দিলীপ ঘোষের অনুপ্রেরনায় লোন পেতে গরু নিয়ে ব্যাঙ্কে হাজির বাঙালি

397
দিলীপ ঘোষের অনুপ্রেরনায় লোন পেতে গরু নিয়ে ব্যাঙ্কে হাজির বাঙালি/The News বাংলা
দিলীপ ঘোষের অনুপ্রেরনায় লোন পেতে গরু নিয়ে ব্যাঙ্কে হাজির বাঙালি/The News বাংলা

কথার রেস কাটতে না কাটতেই কাজ শুরু। দিলীপ ঘোষের কথায় ভরসা করে; গরু হাতে সোজা গোল্ড লোনের দরজায় হাজির এক কৃষক। নিজের ব্যবসা বাড়াতে; গোরুর দুধেই ভরসা রাখলেন ডানকুনির কৃষক। রাজ্যবাসী হেসে উড়িয়ে দিলেও; বিজেপি নেতার বচনে বিশ্বাস করেই লোন চাইছে বাংলার কৃষকরা। গরুর দুধে সোনা আছে জানতে পেরেই; নিজের গরু নিয়ে চলে যান ঋণদানকারী সংস্থা ‘মনপ্পুরম ফাইনান্স লিমিটেড’-এর অফিসে। গিয়ে তিনি সাফ জানায়; ‘গরু নিয়ে এসেছি। এর দুধে সোনা আছে। এটিকে জমা রেখে লোন দিন আমাকে’। ঘটনাটি ঘটেছে হুগলী জেলার ডানকুনিতে।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন; দেশীয় গরুর দুধে রয়েছে সোনা। আর তাই গরুর দুধের রঙ নাকি হলদেটে। সংবাদমাধ্যমকে ওই কৃষক জানান; তিনি গোল্ড লোন চাইতে মনিপ্পুরমে এসেছেন এবং সঙ্গে করে দুটি গোরুও এনেছেন। তিনি জানান; ‘আমি শুনেছি গরুর দুধে সোনা রয়েছে। আমার পরিবার এই গরু গুলির ওপর নির্ভর করে। আমার কাছে ২০ টি গরু রয়েছে; যদি আমি ঋণ পাই তবে আমার ব্যবসা আরও বড় করতে পারব’।

আরও পড়ুনঃ গঙ্গাসাগরের তীর্থযাত্রীদের জন্য থাকছে নতুন চমক

অন্যদিকে, গড়লগাছা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান মনোজ সিং পড়েছেন মহা বিপদে! বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের পর থেকেই তার কাছে গ্রামের বহু মানুষ আসছে; গরু বন্দক রেখে লোন নেওয়ার জন্য। প্রতিদিন নানান লোক এসে জানতে চাইছে যে গরু প্রতিদিন ১৫ থেকে ১৬ লিটার দুধ দেয়, তার বদলে কতটা ঋণ পাবেন তাঁরা।

সঙ্গে মনোজ সিং আরও যোগ করেন, “আমি এসব শুনে লজ্জিত। একজন রাজনৈতিক নেতার উচিত রুটি, কাপড়, বাড়ি নিয়ে কথা বলা উচিত। উন্নতির ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা করা উচিত। কিন্তু বিজেপি শুধুমাত্র ধর্ম ও হিন্দুত্ববাদ নিয়ে কথা বলেন। মানুষ দেখছে কী ঘটছে এবং তাঁরা সিদ্ধান্ত নেবে’।

আরও পড়ুনঃ প্রাথমিক শিক্ষকদের আন্দোলন, থানায় ডেকে গ্রেফতার মহিলা নেত্রীকে

উল্লেখ্য, বর্ধমান টাউন হলে এক অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানেই ভারতীয় গরুর বৈশিষ্ট্য বলতে গিয়ে জানান; দুধের মধ্যে সোনার ভাগ থাকে তাই দুধের রঙ একটু হলদেটে হয়। তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে তৈরি হয় বিতর্ক।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন