হিজাব পরার জন্য নিজের দলের মহিলা নেত্রীর প্রার্থীপদ, বাতিল করলেন দেশের রাষ্ট্রপতি

6613
হিজাব পরার জন্য নিজের দলের মহিলা নেত্রীর প্রার্থীপদ, বাতিল করলেন দেশের রাষ্ট্রপতি
হিজাব পরার জন্য নিজের দলের মহিলা নেত্রীর প্রার্থীপদ, বাতিল করলেন দেশের রাষ্ট্রপতি

হিজাব পরার জন্য নিজের দলের মহিলা নেত্রীকে; ভোটে প্রার্থী করলেন না ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি। ফরাসী রাষ্ট্রপতি ইমমানুয়েল ম্যাক্রোঁর ক্ষমতাসীন কেন্দ্রবাদী দল; নিজের দলের একজন মুসলিম প্রার্থীকে; হিজাব পরার জন্য, ভোট ক্যাম্পেন-এর ছবি তোলার পরেও দেশের নির্বাচনে অংশ নিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এই সিদ্ধান্তে দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। ফ্রান্সে কিছু দিনের মধ্যেই; নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। আর তার ঠিক আগেই হিজাব পরাকে কেন্দ্র করে; দেশ জুড়ে বিতর্ক ও চর্চা তুঙ্গে উঠেছে।

ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল ম্যাক্রো; একজন ক’ট্টরপন্থী বিরোধী রাষ্ট্রপতি হিসেবেই বিশ্বে খ্যাত। ক’ট্টরপন্থীদের বিরুদ্ধে স্পষ্ট পদক্ষেপ নেওয়ার দিক থেকে; বিশ্বের যেসব নেতারা বড় ভূমিকা পালন করেন; তাদের সবার উপরে ইমানুয়েলের নাম। এবার ফের তিনি বিতর্কে। রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল পার্টির মুসলিম ক্যান্ডিডেট সারা জেমাহি-র; ভোটের টিকিট বাতিল করেছেন। হিজাব পরে প্রচারে নামার কারণেই, সারা জেমাহি-র টিকিট বাতিল করে দেওয়া হয়েছে; জানা গেছে ইমানুয়েলের LREM (The Republic on the Move, LREM) পার্টির তরফে।

মুসলিম নেত্রীর ভোটের টিকিট বাতিল করার পর, ম্যাক্রো বলেছেন; “ফ্রান্সে ক’ট্টরতার কোন স্থান নেই। ম্যাক্রোর সিদ্ধান্তের পর, গোটা ফ্রান্স যেন; দুভাগে ভাগ হয়ে গেছে। গোটা দেশেই, দুধরনের মন্তব্য; সামনে এসেছে। একদল মানুষ ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতির সমর্থনে নেমেছেন; অন্যদল বিরোধিতায়।

আরও পড়ুনঃ চরম লজ্জা, কোটি টাকার জালিয়াতি করে, জেলে মহাত্মা গান্ধীর প্ৰপৌত্রী

এক দলের দাবি, রাষ্ট্রপতি একটা সাহসী পদক্ষেপ নিয়েছেন; ক’ট্টরপন্থীদের দিকে স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছেন। অন্যদল বলছেন, ফ্রান্সে স্থানীয় নির্বাচনে আগে বেশ কয়েকজন মহিলাকে; প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছিল। কিন্তু যেই এক মুসলিম মহিলা হিজাব করে প্রচার শুরু করলেন; সেই পার্টি তাঁর হাত থেকে ভোটের টিকিট কেড়ে নিল।

তবে শুধু সারা জেমাহি নয়, আরো ৩ জন মুসলিম প্রার্থীর সঙ্গে; এমন হয়েছে হয়েছে বলে ফ্রান্সের মিডিয়া সূত্রে খবর সামনে এসেছে। ম্যাক্রোর পার্টি লারেম, আগেই মুসলিম প্রার্থীদের স্পষ্ট করে জানিয়েছিল যে; প্রচারের সময় ধার্মিক চিহ্ন ব্যবহার করা যাবে না। পার্টির তরফ থেকে স্পষ্ট বার্তা থাকা সত্বেও; দলের প্রার্থীরা তা অমান্য করায় তাঁদের টিকিট বাতিল করা হয়। এখন সেই সমস্ত প্রার্থীরা, নির্দল হিসেবে; নির্বাচনে নেমেছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন