ইলিশ কিনলেই পেঁয়াজ ফ্রি, বিজ্ঞাপনের টোটকায় লাফিয়ে বাড়ল বিক্রি

367
ইলিশ কিনলেই পেঁয়াজ ফ্রি, বিজ্ঞাপনের টোটকায় লাফিয়ে বাড়ল বিক্রি/The News বাংলা
ইলিশ কিনলেই পেঁয়াজ ফ্রি, বিজ্ঞাপনের টোটকায় লাফিয়ে বাড়ল বিক্রি/The News বাংলা

ইলিশ কিনলেই পেঁয়াজ ফ্রি, বিজ্ঞাপনের টোটকায় লাফিয়ে বাড়ল বিক্রি। কলকাতাতেও ডবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছে পেঁয়াজ। ভাও বেড়েছে পেঁয়াজের। সে বহুদিন আগেই রান্নাঘরের পথ ভুলেছে। বাঙালির হেঁসেলে সে যে এখন ভিভিআইপি। ক্রমাগত যেভাবে সেঞ্চুরি থেকে ডবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছে; পেঁয়াজ। তাকে বাদ দিয়েই চলছে; ভোজনরসিক বাঙালির রসনাতৃপ্তি। তবে তা কি আর রসনাতৃপ্তি; একরকম দামের কাছে অসহায় হয়েই একেবারে নিরামিশাষী হয়ে যেতে হয়েছে; মাছে ভাতে বাঙালিকে।

পেঁয়াজের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে দেশের মানুষ। জোগান কম, তাই চড়িচড়িয়ে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। আর পেঁয়াজকে বাদ দিয়ে কতদিনই বা বাঙালি হেঁশেলে রন্ধন প্রক্রিয়া চালিয়ে যাবে। তাই তো এখন ক্রেতারা পেঁয়াজ পেতে এতটাই মরিয়া যে; যে কোনও টোপ তারা গিলে ফেলছে। তা সে রক্তদান শিবিরে রক্ত দেওয়া হোক; বা দামি ইলিশ মাছ কেনা। শুধু পেঁয়াজ পেলেই হল।

আরও পড়ুনঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আজ রাজ্যসভায়, বিরোধীদের সঙ্গে স্নায়ুযুদ্ধ

এবার এরকম একটি টোপ দিয়ে; ক্রেতা টানতে দেখা গেল চারু মার্কেটের এক ব্যবসায়ীকে। পেঁয়াজের মূল্যবদ্ধিকে হাতিয়ার করেই; চলছে কেজি কেজি ইলিশ বিক্রি। বোর্ড টাঙিয়ে লিখে দিয়েছেন; একটা পদ্মার ইলিশের সঙ্গে এক কেজি পেঁয়াজ নিয়ে যান বিনামূল্যে।

এতদিন যেখানে মাছ ব্যবসায়ী বাবু বরের ইলিশ বিক্রি হত ২-৩ টি; এখন এমন বিজ্ঞাপনে কয়েকগুন বেড়ে গিয়েছে ইলিশের বিক্রি। ইলিশের দাম যতই বেশি হোক; পেঁয়াজ পেতে বেশি দাম দিয়েও ইলিশ কিনছেন ক্রেতারা। ভিড় জমাচ্ছেন তার দোকানে। বাবু বর জানান; বিজ্ঞাপনের এই বুদ্ধি কাজ করেছে।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের ভাষায় কথা বলছে বিরোধীরা, ক্যাব নিয়ে দেশ ভাগ

তিন দিনে ৪০ টি ইলিশ; ইতিমধ্যেই বিক্রি করে উঠতে পেরেছেন তিনি। সম্প্রতি এক ইউনিট রক্ত দিয়ে; পেঁয়াজ মিলছিল সুরাটের এক রক্ত দান শিবিরে। আগামি দিনে পেঁয়াজের মূল্যে কোনও লাগাম টানা না গেলে; আরও কি কি টোপ নিয়ে ক্রেতা টানতে বাজারে নামবে দোকানদাররা তাই দেখার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন