কথা রাখেনি রাজ্য সরকার, জাতীয় চ্যাম্পিয়ন সরিতা আজ দিনমজুর

5018
কথা রাখেনি রাজ্য সরকার, জাতীয় স্তরে চ্যাম্পিয়ন সরিতা আজ দিনমজুর

এই দেশে শুধু ক্রিকেট আর ফুটবল নিয়েই মাতামাতি। লাইম লাইটের পুরো আলোটাই থাকে; ক্রিকেটার ও ফুটবলারদের দিকে। অন্যদিকে অবহেলার অন্ধকার। সেই অন্ধকারেই; ন্যাশনাল গেমসে‌ সোনা বিজয়ী খেলোয়াড় সরিতা তিরকে; আজ নিজের জীবিকা নির্বাহ করছে দিনমজুরের কাজ করে। ঝাড়খণ্ড সরকারের কাছ থেকে সব মিলিয়ে; মোট ৩.৭১ লক্ষ টাকা পাবার কথা সরিতার; কিন্তু সরকার থেকে প্রতিশ্রুতি পেলেও; মেলেনি কোনও আর্থিক সাহায্য। কথা রাখেনি রাজ্য সরকার; আর তাই জাতীয় স্তরে চ্যাম্পিয়ন সরিতা আজ দিনমজুর।

আরও পড়ুনঃ সরকারি হাসপাতাল ছেড়ে কেন বেসরকারি, অমিত শাহকে প্রশ্ন করে নিজেই বেসরকারি হাসপাতালে মহম্মদ সেলিম

লন বল; নামই শোনে নি কেউই। কিন্তু এই লন বলেই, ২০১১ এবং ২০১৫ সালে; জাতীয় স্তরে চ্যাম্পিয়ন হন সরিতা তিরকে। শুধু তাই নয়, আন্তর্জাতিক স্তরেও একাধিকবার; দেশের নাম উজ্জ্বল করেছেন তিনি। আর সেই খেলোয়াড়ই; এখন রয়েছেন চরম আর্থিক সংকটে। সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরোয় অবস্থা। আর তাই সংসার চালাতে কখনও চায়ের দোকান চালানো; তো কখনও দিনমজুরের কাজ করা; এটাই এখন ঝাড়খণ্ডের লন বল খেলোয়াড় সরিতা তিরকের জীবনের রোজনামচা।

আরও পড়ুনঃ IAS, ব্যাঙ্কের লাখ টাকার চাকরি ছেড়ে, দেশের প্রথম ১৫ তে বাংলার রৌনক

ঝাড়খণ্ডের অত্যন্ত দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে আসা সরিতা তিরকে; ২০০৭ সাল থেকে জাতীয় গেমসে অংশগ্রহণ করছেন। ওই বছর তিনি ঝাড়খণ্ডের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন। এরপর ২০১১ সালে বিহারের হয়ে খেলে; সোনা জেতেন সরিতা। ২০১৫ সালে ফের ঝাড়খণ্ডের হয়ে খেলে; জাতীয় গেমসে চ্যাম্পিয়ন হন সরিতা। এছাড়া ২০১৫ এবং ২০১৭ সালে; ন্যাশনাল লন বল চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জেতেন তিনি। ২০১৮ সালে জিতেছিলেন রুপো। গত বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত এশিয়া প্যাসিফিক চ্যাম্পিয়নশিপে; ব্রোঞ্জ জিতে বিশ্বের দরবারে ভারতের নাম উজ্জ্বল করেন তিনি। সেই সরিতা সরকারের উদাসীনতায় এখন দিনমজুর।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন