সরকারি প্রকল্প পাইয়ে দেওয়ার টোপ, বর্ধমানে যুবতীকে লাগাতার ধ’র্ষ’ণ তৃণমূল নেতার

51
সরকারি প্রকল্প পাইয়ে দেওয়ার টোপ, বর্ধমানে যুবতীকে ধ'র্ষ'ণ তৃণমূল নেতার
সরকারি প্রকল্প পাইয়ে দেওয়ার টোপ, বর্ধমানে যুবতীকে ধ'র্ষ'ণ তৃণমূল নেতার
Simple Custom Content Adder

সরকারি প্রকল্প পাইয়ে দেওয়ার টোপ দিয়ে; বর্ধমানে এক যুবতীকে লাগাতার ধ’র্ষ’ণ তৃণমূল নেতার। এমন অভিযোগেই উত্তাল; পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রাম। এক তরুণীর অভিযোগ, সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার নাম করে; একাধিকবার তাঁকে ধ’র্ষ’ণ করে, পূর্ব বর্ধমান জেলার কেতুগ্রামের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন ব্লক সভাপতি রত্নাকর দে। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই; চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

পুলিশকে দেওয়া যুবতীর অভিযোগ, তৃণমূল নেতা রত্নাকর দে; বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের ঘনিষ্ঠ বলে নিজেকে পরিচয় দেয়। সংসারে দারিদ্রতা থাকায়, ওই তরুণীকে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের; সুযোগ নেওয়ার পরামর্শ দেয় ওই নেতা। তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে, কখনও কেতুগ্রাম পুরনো বাজারের কাছে ভাড়া বাড়িতে; কখনও কাটোয়ার লজে নিয়ে যাওয়া হয়। বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে গিয়ে, ওই যুবতীকে একাধিকবার; সারাদিন ধরে জোর করে ধ’র্ষ’ণ করে।

আরও অভিযোগ উঠেছে, ভয় দেখিয়ে জোর করে; সাদা কাগজে সই করিয়ে রেজিস্ট্রি বিয়ে করে অভি’যুক্ত। স্থানীয় একটি লজে তাকে বউ সাজিয়ে; সেই ছবিও তুলে রাখে। অভি’যুক্ত তৃণমূল কংগ্রেস নেতা; পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামের প্রাক্তন ব্লক সভাপতি রত্নাকর দে।

আরও পড়ুনঃ বিপদে পার্থ পরেশ অনুব্রত, তৃণমূলের তিন নেতার সম্পত্তির দিকে নজর দিল সিবিআই

নির্যাতিতার কথায়, ওই তৃণমূল নেতা প্রভাব খাটিয়ে; সাদা কাগজের সই কাজে লাগিয়ে রেজিস্ট্রি বিবাহ করে রেখেছে। যাতে কখনও ধ’র্ষ’ণের অভিযোগ; করতে না পারেন। এই কথা পাঁচ কান হলে বিপদ হবে; বলে হু’মকিও দেওয়া হয়। বিষয়টি কাউকে জানালে, নির্যা’তিতা ও তার পরিবারের সদস্যদের; খু’ন করার দেওয়ার হু’মকিও দেয় ওই তৃণমূল নেতা। ওই তৃণমূল নেতার প্রভাব-প্রতিপত্তির কথা ভেবে; ভয়ে এবং লোকলজ্জায় কোথাও অভিযোগ করেননি তরুণী।

সম্প্রতি ওই তৃণমূল নেতার অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে, তার হাত থেকে বাঁচার জন্য কেতুগ্রাম থেকে; ওই মহিলা ও তাঁর বাবা-মা পালিয়ে চলে আসেন নদিয়ার হাঁসখালি থানা এলাকায়। সেখানেও গত ২২ মে সন্ধেয়; দু-জন অপরিচিত ব্যক্তি ওই হাঁসখালি থানা এলাকার কেতুগ্রাম ফিরে যাওয়ার জন্য হুমকি দেয়। তাই বাধ্য হয়ে তিনি নদিয়ার হাঁসখালি থানায়; লিখিত অভিযোগ করেছেন। তবে এবিষয়ে অভিযুক্তকে একাধিকবার ফোন করা হলেও; তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। ঘটনায় বিব্রত স্থানীয় তৃণমূল।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন