‘বাংলার চাকরির হাল’, ডোমপদে চাকরিপ্রার্থী স্নাতকে ইতিহাসে গোল্ড মেডেলিস্ট স্বর্ণালী

963
'বাংলার হাল', ডোমপদে চাকরিপ্রার্থী স্নাতকে ইতিহাসে গোল্ড মেডেলিস্ট স্বর্ণালী
'বাংলার হাল', ডোমপদে চাকরিপ্রার্থী স্নাতকে ইতিহাসে গোল্ড মেডেলিস্ট স্বর্ণালী

‘বাংলার চাকরির হাল’, ডোমপদে চাকরিপ্রার্থী; স্নাতকে ইতিহাসে গোল্ড মেডেলিস্ট স্বর্ণালী। বেকারত্বের জ্বালা; কোথায় গিয়ে পৌঁছুতে পারে? সরকারি এনআরএস হাসপাতালে, অস্থায়ী ডোম নিয়োগের; বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে। মোট ৬টি পদের জন্য আবেদন জমা পরেছে; প্রায় ৮ হাজার। সরকারি হাসপাতালে অস্থায়ী ডোম নিয়োগ, ৮ হাজার আবেদনে; ইঞ্জিনিয়ারিং, স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী, মহিলারাও। আবেদনকারীদের মধ্যে আছেন; ২ হাজারেরও বেশি স্নাতক। আছেন ৫০০-র কাছাকাছি; স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী। এছাড়াও ডোম হতে চেয়ে আবেদন করেছেন; ১০০ জন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারী। এঁদের মধ্য থেকে ঝাড়াই বাছাই করে, ৭৮৪ জনকে পরীক্ষায় ডাকা হয়; তাঁদের মধ্যে ৮৪ জন মহিলা। তার মধ্যেই আছেন; স্নাতকে ইতিহাসে গোল্ড মেডেলিস্ট স্বর্ণালী সামন্ত।

‘বাংলার চাকরির হাল’, লাশ কাটা ঘরে চাকরিপ্রার্থী; স্নাতকে ইতিহাসে গোল্ড মেডেলিস্ট স্বর্ণালী। হাসপাতালের লাশ কাটা ঘরে, ছজনকে অস্থায়ী ভাবে নিয়োগ করা হবে জানিয়ে; বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন কলকাতার নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ। দুহাজার আবেদনের মধ্যে ৭৮৪ জনকে; পরীক্ষায় বসার জন্য অ্যাডমিট কার্ড দেওয়া হয়। ‘অতি যোগ্য’ প্রার্থীদের ভিড়ে ডাক পাননি; ডোমের পরিবারের সঙ্গে যুক্ত থাকা বহু প্রার্থীই।

আরও পড়ুনঃ সরকারি হাসপাতালে অস্থায়ী ডোম নিয়োগ, আবেদনে ইঞ্জিনিয়ারিং, স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী, মহিলারাও

এরই মধ্যে একজন পরীক্ষার্থীর কথা সামনে এসেছে; যা বাংলা সহ গোটা দেশের ভয়াবহ বেকারত্বের দিকটি তুলে ধরেছে। ডোম পদে নিয়োগের জন্য পরীক্ষা দিয়েছেন; স্নাতকে ইতিহাসের গোল্ড মেডেলিস্ট। শিবপুরের বাসিন্দা স্বর্ণালী সামন্ত, এনআরএস কলেজে ডোম পদে; চাকরির জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন। যে পদের জন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতা; অষ্টম শ্রেণি পাশ। সেই পদের জন্য পরীক্ষায় বসলেন; স্নাতকে গোল্ড মেডেল পাওয়া হাওড়ার শিবপুরের স্বর্ণালী সামন্ত।

স্বর্ণালীর স্বামী দেবব্রত; উবের-এর বাইক চালান। নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের হলেও; কোনওমতে সুখে-শান্তিতে কাটছিল জীবন। করোনা মহামারীর কারণে, ছোট্ট সংসারে নেমে আসে; কষ্টের কালো মেঘ। সেই কারণেই এনআরএসে ডোম পদে; চাকরির আবেদন করেন স্বর্ণালী। স্বর্ণালী জানান, নিয়োগের বিজ্ঞাপনে লেখা ছিল; ল্যাবরেটরি অ্যাটেনডেন্ট (পূর্বের ডোম পদ)। আবেদনের সময়ও তিনি জানতেন না; সেটি ডোমপদের বিজ্ঞপ্তি। পরে বিষয়টা পরিষ্কার হলেও; অবশ্য পিছিয়ে যাননি তিনি। তাঁর কথায়, “আমার একটা নিরাপদ চাকরির, খুব প্রয়োজন; পরীক্ষা দিয়েছি, চাকরি পেলে ডোমের কাজও করব”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন