প্রিয় শিষ্যের মৃত্যুদিনেই নিভল গুরু প্রদীপ

1368
প্রিয় শিষ্যের মৃত্যুদিনেই নিভল গুরু প্রদীপ
প্রিয় শিষ্যের মৃত্যুদিনেই নিভল গুরু প্রদীপ

কাকতালীয়! প্রিয় শিষ্যের মৃত্যুদিনেই নিভল গুরু প্রদীপ। কৃশানু দে, যাকে বলা হয় ময়দানের মারাদোনা; তিনিও চলে যান ২০০৩ এর এই ২০ শে মার্চ। আর আজ ২০২০ এর ২০ শে মার্চ চলে গেলেন; গুরু পিকে ব্যানার্জিও। প্রিয় ছাত্রের মৃত্যুদিনেই; চলে যেতে হল গুরুকে? কাকতালীয়! অদ্ভুত! বলছেন ময়দানের প্রাক্তন ও বর্তমান ফুটবলাররা। ‘আত্নার টান’; বলেছেন অনেকেই। জন্মের সময় এক নিঃশ্বাসে উচ্চারিত হত; গুরু শিষ্যের নাম। সেই প্রিয় শিষ্যের মৃত্যুদিনটিকেই; চলে যাবার জন্য বেছে নিলেন গুরু। আর সেই সঙ্গে ২০শে মার্চই হল; ফুটবল ও ফুটবলপ্রেমী মানুষদের কাছে এক কালো দিন।

বন্ধ হল ভোকাল টনিক, চলে গেলেন পি কে ব্যানার্জি

বন্ধ হল ভোকাল টনিক; চলে গেলেন পি কে ব্যানার্জি। প্রয়াত পিকে বন্দ্যোপাধ্যায়; ভারতীয় ফুটবলে ইন্দ্রপতন (১৯৩৬-২০২০)। শুক্রবার দুপুরে বাইপাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে; মারা যান প্রদীপ কুমার ব্যানার্জি; যিনি পিকে নামেই পরিচিত গোটা ভারতের ফুটবল জগতে। এর ফলে, শেষ হল একটা সোনার অধ্যায়ের৷ চলে গেলেন বাংলা তথা ভারতের অন্যতম সেরা ফুটবলার ও কোচ; পিকে বন্দ্যোপাধ্যায়৷

কলকাতা হয়েছে লন্ডন, ঢুকে পরেছে একের পর এক করোনা ভাইরাস আক্রান্ত

১৭ বছর আগে; চলে গিয়েছিলেন আমাদের সবার প্রিয় রন্টুদা বা ‘ভারতীয় ম্যারাডোনা’ কৃশানু দে। ওনার স্কিল মুগ্ধ করেছিল; আপামর ফুটবল প্রেমীদের। বাঁ পায়ে-তে অসাধারণ ডজ; সঙ্গে অপূর্ব ফুটবল সেন্স। গুরু পিকে-কে মুগ্ধ করেছিল ছাত্র কৃশানু। আর তারপর থেকেই কলকাতা ময়দানে শুরু হয়; গুরু শিষ্য যুগলবন্দী। শেষ পর্যন্ত সেই প্রিয় শিষ্যের মৃত্যুদিনেই; প্রিয় শিষ্য কৃশানুর কাছে গেলেন গুরু পিকে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন