নন্দীগ্রামের পর হুগলি, ভোটের আগে ফের ভাঙন তৃণমূলে, যোগ বিজেপিতে

2110
নন্দীগ্রামের পর হুগলি, ভোটের আগে ফের ভাঙন তৃণমূলে
নন্দীগ্রামের পর হুগলি, ভোটের আগে ফের ভাঙন তৃণমূলে

নন্দীগ্রামের পর হুগলি; ভোটের আগে ফের ভাঙন তৃণমূলে। যোগ দিলেন বিজেপিতে। নন্দীগ্রামের পর হুগলি; পুজোর মুখে ফের তৃণমূলে ভাঙন। এবার পদ্মশিবিরে যোগ দিলেন; আরামবাগের সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের সহযোগী; সহ প্রায় ১০০ জন কর্মী। বিধানসভা ভোটের আগে, একের পর এক দলত্যাগ; শাসকদলের দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের ঘনিষ্ঠ দাপুটে তৃণমূল নেতা মিঠুন মল্লিক; ও আরও প্রায় ১০০ নেতা-কর্মীর হাতে দলের পতাকা তুলে দেন; বিজেপির আরামবাগ সাংগঠনিক জেলা সভাপতি।

আরও পড়ুনঃ পঞ্চমীতে ফের হাইকোর্ট রায় দেবে দুর্গা পুজো নিয়ে, ফোরাম ফর দুর্গোৎসবের রিভিউ পিটিশান গ্রহণ আদালতে

এদিন দলত্যাগের পরই তৃণমূলের বিরুদ্ধে; ক্ষোভ উগরে দেন মিঠুন মল্লিক। তিনি অভিযোগ করেন; “দুর্নীতিগ্রস্তরাই শাসকদলে পদ পাচ্ছেন। এবিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে জানিয়েও; কোনও লাভ হয়নি। সেই কারণেই দলত্যাগের সিদ্ধান্ত”। যদিও মিঠুন মল্লিকের দলত্যাগ ও তাঁর অভিযোগ, কোনওটাকেই গুরুত্ব দিতে রাজি নন; তৃণমূল নেতা প্রবীর ঘোষাল। তাঁর কথায়, “ওই নেতার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই; নানা অভিযোগ আসছিল। তাই ওনার দলত্যাগের; কোনও প্রভাব পড়বে না”।

আরও পড়ুনঃ পুজো মণ্ডপে দর্শক ঢোকার অনুমতি পেতে, কলকাতা হাইকোর্টে রিভিউ পিটিশন দায়ের ফোরাম ফর দুর্গোৎসবের

বিধানসভা নির্বাচনের আগে জেলায় জেলায়; শাসকদলে ভাঙন শুরু হয়েছে। উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, বাঁকুড়া, বীরভূম-সহ; প্রায় সমস্ত জেলাতেই তৃণমূল কর্মীরা হাতে তুলে নিচ্ছেন গেরুয়া পতাকা। রবিবার নন্দীগ্রামেও তৃণমূল কর্মীরা দল ছেড়েছেন। এত দলত্যাগ পুরভোট ও বিধানসভা ভোটের আগে; তৃণমূলের চিন্তা বাড়াবে, আর বিজেপির ভরসা বাড়াবে; তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন