তৃণমূল নেতার কীর্তি ফাঁস, পঞ্চায়েত অফিসেই গৃহবধূর শ্লীলতাহানি

1725
তৃণমূল নেতার কীর্তি ফাঁস, পঞ্চায়েত অফিসেই গৃহবধূর শ্লীলতাহানি/The News বাংলা
তৃণমূল নেতার কীর্তি ফাঁস, পঞ্চায়েত অফিসেই গৃহবধূর শ্লীলতাহানি/The News বাংলা

তৃণমূল নেতার কীর্তি ফাঁস; পঞ্চায়েত অফিসেই গৃহবধূর শ্লীলতাহানির অভিযোগ। এক গৃহবধূকে বুলবুল ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষ‌তি হওয়া; ত্রিপল দেওয়ার নাম করে পঞ্চায়েত অফিসে ডেকে নিয়ে গিয়ে দরজা বন্ধ করে; শ্লীলতাহানি করার অভিযোগ উঠল; তৃণমূল পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান এর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত নারায়ণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান চন্দ্রমোহন পাইক। অভিযুক্ত নেতা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

অভিযোগ; ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত নারায়ণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের এক গৃহবধূ পঞ্চায়েত অফিসে ত্রিপল আনতে যায়। পঞ্চায়েত অফিসে সেই সময় দরজা বন্ধ করে; চন্দ্রমোহন পাইক তার উপরে চড়াও হয়। গৃহবধূর সঙ্গে অশ্লীল আচরণ করে বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন চলে গেলেন ক্রিকেট দাদি, চারুলতা প্যাটেলের প্রয়ানে শোকস্তব্ধ ক্রিকেট মহল

এই ঘটনার অভিযোগ জানিয়ে; ওই গৃহবধূ কাকদ্বীপ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে অভিযুক্ত চন্দ্রমোহন পাইক এর বিরুদ্ধে। যদিও এখনও পর্যন্ত; অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি পুলিশ। তৃণমূল নেতা বলেই; পুলিশ হাত গুটিয়ে রয়েছে, বলেই অভিযোগ।

ফলে পুলিশের ভু‌মিকা নিয়েই; প্রশ্ন উঠেছে। এই ঘটনার জেরে; অভিযুক্তের শাস্তির দাবি তুলেছেন এই গৃহবধূ। পাশাপাশি; এই ঘটনা ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন; তৃণমূল নেতা চন্দ্রমোহন। নারায়নপুর তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি দাবি করেছেন যে; বিষয়টি রাজনৈতিক চক্রান্ত। এটি বিজেপির কারচুপি। এই ঘটনা যদি প্রমাণিত হয়; তাহলে অবশ্যই চন্দ্রমোহনকে সাসপেন্ড করা হবে।

অ‌ভিযুক্ত চন্দ্রমোহন পাইক অভিযোগ অস্বীকার ক‌রে‌ছেন। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে; গোটা এলাকায়।ঘটনার সুত্রপাত চল‌তি মা‌সের ১১ তা‌রি‌খে। অ‌‌ভিযোগ দায়ের হয় ১৩ তা‌রিখ। অাজও দিশেহারা পর‌বিার। কোন ব্যবস্থাই নেয় নি পুলিশ। অভিযোগ; তৃণমূল নেতার তরফ থেকে হুম‌কি অাস‌ছে ওই গৃহবধূর পরিবারে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন