ফ্লু থেকে বাঁচতে ঘরোয়া টোটকাই সেরা

355
ফ্লু থেকে বাঁচতে ঘরোয়া টোটকাই সেরা/The News বাংলা

ফ্লু থেকে বাঁচতে ঘরোয়া টোটকাই সেরা । এমনিতেই সিজন চেঞ্জের সময়। প্রত্যেক বাড়িতেই জ্বর; সর্দির মতো সমস্যা লেগেই আছে। বাড়িতে থাকলেও যেন চরম অস্বস্তির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। আর অফিসে বেরোলে তো কথাই নেই; রুমাল দিয়ে নাক ঘষে নাকের চেহারার বারোটা বেজে যায়।

অফিস যাওয়ার তাগাদা থাকলে; ডাক্তারের কাছে যাওয়ার সময়ও খুব একটা জোটেনা। তাই বাধ্য হয়েই যদি ছুটি নিতে পারেন; এক দু দিন তবে কিছু ঘরোয়া টোটকা আপনাকে স্বস্তি দিতে পারে।

প্রথমেই আসি মধুর প্রসঙ্গে। জ্বর; সর্দির সময় তো বটেই যদি কেউ বারো মাস এই টোটকা ব্যবহার করতে পারেন; তা হলে ফল পাবেন হাতে নাতে। জ্বর সর্দির জ্বালা থেকে মুক্ত থাকবেন; আপনি। আর সর্দির সময় তো ঘরে তৈরি মহার্ঘ দাওয়াই এই মধু। তবে মধু একা নয়; তার সঙ্গ দেবে তুলসী পাতা। যখনই সর্দিতে ভুগবেন প্রত্যেকদিন সকালে মধু ও তুলসীপাতা একসঙ্গে খেয়ে নিন। গলা তো পরিস্কার হবেই; সঙ্গে আরাম পাবেন আপনি।

এরপর যে টোটকার কথা বলব তা হয়তো; শীত-গ্রীষ্ম সব মরসুমেই খাওয়া হয়ে থাকে। তবে সর্দি কাশিতে এর কার্যকারীতা আলাদা। আদা চা। গলার অবস্থা খারাপ হলেই সবচেয়ে বেশি মনে পড়ে; আদার কথা। গলা না বেরোলে; মানে গলার স্বর চেপে গেলে আদা চায়ের জুড়ি মেলা ভার। বুকের কফ পরিস্কর করতেও আদা চায়ের তুলনা হয় না।

গরম জলে চিনি ফেলে চা দিন। এরপরেই; মেশান আদা কুচি। ছাকনি দিয়ে ছেঁকে নিন। আর একটু স্বাদ আনতে; তাতে পাতিলেবুর রসও মেশাতে পারেন। আদা চায়ে; সর্দির সময় মাথা ধরা তো কমবেই; পাতিলেবুর রস ভিটামিন সি এর অভাব দূর করবে। আর আদা চা শরীরে যেতেই গলা পরিস্কার হয়ে; মাথাও চাঙ্গা হয়ে উঠবে।

ভিটামিনের অভাব হলেই; ঝিমিয়ে পড়ে শরীর। দুর্বলতা জাঁকড়ে ধরে। তখন বাইরের রোগজীবাণু সহজেই; শরীরে বাসা বাঁধে। ফ্লুও হয়ে থাকে ভিটামিনের অভাব হলে। অনেকেই শরীরে ভিটামিন পেতে; ভিটামিনস সাপ্লিমেন্টসের দ্বারস্থ হন।

কিন্তু জানেন কি আপনার হাতের কাছেই রয়েছে এমন কিছু খাবার যা থেকে সহজেই ভিটামিন এ, বি, সি পাওয়া যায়। তাই এমন কিছু খাবারের তালিকা নিজেই; তৈরি করে ফেলুন যাতে এই তিনটি ভিটামিন ভরপুর মাত্রায় আপনি পেয়ে যাবেন। জ্বর; সর্দি কিছুই আর আপনাকে কাবু করতে পারবে না।

ঠান্ডা লাগলে বেশি মাত্রায় তরল খাবার খান। সরাসরি ঠান্ডা জল না খেয়ে, জল ফুটিয়ে খান, গলাও আরাম পাবে। এছাড়া খেতে পারেন ফ্রুট জুস, বা গরম স্যুপ। এতে বুকে কফ বসবে না, বেরিয়ে আসবে।

জ্বর-সর্দি হলে; এক জায়গাতেই থাকুন। এই সময় বাড়ির বাইরে না বেরোনোই ভাল। কারণ ফ্লু বরাবরই ছোঁয়াচে। আপনার শরীর থেকে অন্য কারও শরীরেও ছড়িয়ে পড়তে পারে; ভাইরাস। যারা অফিস যান তারা এই সময়; বাড়িতে বিশ্রাম নেওয়ার চেষ্টা করুন। পারলে একটু ঘুমোন; এতে অনেক চাঙ্গা লাগবে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন