শক্তিশালী হচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনা, রাশিয়া থেকে আসছে মিগ ও সুখোই যুদ্ধ বিমান

823
শক্তিশালী হচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনা, রাশিয়া থেকে আসছে মিগ ও সুখোই যুদ্ধ বিমান/The News বাংলা
শক্তিশালী হচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনা, রাশিয়া থেকে আসছে মিগ ও সুখোই যুদ্ধ বিমান/The News বাংলা

ফের রাশিয়া থেকে; মিগ ও সুখোই যুদ্ধ বিমান কিনছে ভারত। এর আগেই ১৩৪৪৮ কোটি টাকা ব্যয়ে; রাশিয়া থেকেই ৪৬৪টি ‘টি-৯০ এমএস’ যুদ্ধ ট্যাঙ্ক কেনার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। মোদী সরকারের মন্ত্রীসভা; এই চুক্তিতে সম্মতি দিয়েছে আগেই। এই সব ট্যাঙ্ককে ভারত পাক সীমান্তে রাখা হবে; বলেই জানান হয়। এবার যুদ্ধবিমান কেনার ব্যপারে একধাপ এগোল সরকার।

ভারতীয় বায়ুসেনা রাশিয়া থেকে ১৮টি; মানে এক স্কোয়াড্রন সুখোই-৩০ মাল্টিরোল ফাইটার জেট কেনার প্রস্তুতি নিচ্ছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সুত্র থেকে জানা গেছে যে; দুই দেশের মধ্যে এই চুক্তি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। জানা গেছে যে, এই চুক্তি ফাস্ট ট্র্যাক রুটে হচ্ছে; তাই চুক্তি সম্পন্ন হলেই খুব তাড়াতাড়ি যুদ্ধবিমান ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ ওসামা বিন লাদেনের মত পাকিস্তানে ঢুকে কি দাউদ ইব্রাহিমকে মারতে পারবে ভারত

বর্তমানে ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ার চিফ মার্শাল বিএস ধানোয়া; ৯ই জুলাই থেকে ১২ই জুলাই পর্যন্ত রাশিয়ার সফরে আছেন। ভারত ৯০ এর দশকে রাশিয়া থেকে ২৭২টি সুখোই যুদ্ধবিমানের চুক্তি করেছিল। যার মধ্যে ৫০টি রাশিয়ায়; আর বাকিগুলো ভারতে তৈরি হত। এটি নির্ধারিত সময়েই চলছিল; আর ভারতীয় বায়ুসেনায় ২০০টিরও বেশি সুখোই বিমান নিযুক্ত হয়েছিল। রাশিয়া থেকে আগত; নতুন ১৮টি সুখোই বিমান দিয়ে একটি স্কোয়াড্রন তৈরি হবে।

রাশিয়ার থেকে ২০টি মিগ-২৯ আপগ্রেড বিমান; কেনার কথাবার্তাও চালাচ্ছে ভারত সরকার। ওই মিগ ২৯ বিমানগুলো; ভারত খুব কম দামে পাচ্ছে। আপাতত ৫০টি মিগ-২৯ এর; তিনটি স্কোয়াড্রন ভারতীয় বায়ুসেনায় আছে। মিগ-২৯ ও একটি মাল্টি রোল ফাইটার জেট, যেটা ১৯৮৫ থেকে বায়ুসেনায় নিযুক্ত আছে।

ভারতীয় বায়ুসেনায় স্বীকৃত ৪২টি স্কোয়াড্রন এর শক্তি; কমে এখন ৩১টি হয়ে গেছে। এদের মধ্যে ৬০ এর দশক থেকে; মিগ-২১ আর ৭০ এর দশক থেকে জ্যাগুয়ার বায়ুসেনায় যুক্ত ছিল। স্বদেশী লাইট ওয়েট যুদ্ধবিমান তেজসের উৎপাদন শুরু হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত একটি স্কোয়াড্রনও তৈরি করা যায়নি।

ফ্রান্সের থেকে ৩৬টি রাফাল বিমান কেনা হয়েছে। যেগুলো এবছরের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে বায়ুসেনার হাতে এসে পৌঁছাবে। রাফাল দিয়ে দুটি স্কোয়াড্রন তৈরি করা হবে; যেগুলোকে আম্বালা আর পাসিঘাটে মোতায়েন করা হবে; এমনটাই জানা গেছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন