বাংলার মানুষের ৭০০০ কোটি টাকা মে’রে, ওড়িশার জে’লে মৃ’ত চি’টফান্ড কর্তা

5429
বাংলার মানুষের ৭০০০ কোটি টাকা মে'রে, ওড়িশার জে'লে মৃ'ত চি'টফান্ড কর্তা/The News বাংলা
বাংলার মানুষের ৭০০০ কোটি টাকা মে'রে, ওড়িশার জে'লে মৃ'ত চি'টফান্ড কর্তা/The News বাংলা

বাংলার মানুষের ৭০০০ কোটি টাকা মে’রে; ওড়িশার জে’লে মৃ’ত চি’টফান্ড কর্তা। ওড়িশায় জে’লে মৃ’ত্যু হল, বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থা আইকোর কর্তা; অনুকূল মাইতির। তার বিরুদ্ধে লগ্নিকারীদের থেকে; তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ ছিল। ২০১৭ সালে বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার মাধ্যমে; বাজার থেকে কোটি কোটি টাকা তোলার অভিযোগে; তাকে গ্রেফতার করে সিবিআই। সিবিআইয়ের আগে, রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থা সিআইডি; গ্রেফতার করেছিল পূর্ব মেদিনীপুরের এই চিটফান্ড সংস্থার মালিককে। সিবিআইয়ের দাবি, আইকোর বেআইনি ভাবে পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, ঝাড়খণ্ড এবং ওড়িশা-র কয়েক লক্ষ লগ্নিকারীর কাছ থেকে; প্রায় ৭০০০ হাজার কোটি টাকা তুলেছিল। গোটা টাকাই তারা আত্মসাৎ করে।

সেই মামলা এখনও বিচারাধীন। ওড়িশার কারা দফতর সূত্রে খবর; জেলে থাকাকালীন বেশ কয়েকবার অসুস্থ হয়ে পড়েছিল; মধ্যবয়সী অনুকূল। বেশ কয়েকবার তাকে; হাসপাতালেও ভর্তি করতে হয়। কারা দফতর সূত্রে খবর, শনিবার রাতে সে ফের; অসুস্থ হয়ে পড়ে। তারপর তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে; সেখানেই তার মৃত্যু হয়। কারা কর্তৃপক্ষই ফোনে খবর দেন; অনুকূলের স্ত্রী কণিকাকে। অনুকূলের পরিবার সূত্রে খবর, রবিবার সকালেই; ভুবনেশ্বর রওনা হয়েছে কণিকা। সেও স্বামীর সঙ্গে গ্রেফতার হয়ে জেলে থাকলেও; কয়েক মাস আগেই জামিনে মুক্তি পায়।

আরও পড়ুনঃ “চেঞ্জ করে দাও”, গণতন্ত্রে মুখ্যমন্ত্রী মমতার নয়া সিলেবাস

২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে; অনুকূলকে গ্রেফতার করে সিআইডি। দক্ষিণ কলকাতায় নিজের বাড়ি থেকেই; গ্রেফতার হয় সে আর তার স্ত্রী। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনেই; এই মামলায় হাত দেয় সিবিআই। তদন্তে দেখা যায়, ডিবেঞ্চার, ফিক্সড ডিপোজটের মতো নানা প্রকল্পে; হাজার হাজার কোটি টাকা বাজার থেকে তুলেছে অনুকূল। এই একই সময়ে অনুকূল ছাড়াও গ্রেফতার হয়; ওই সংস্থার দুই ডিরেক্টর স্বপনকুমার রায় ও কবীর হোসেন। অনুকূলের পরেই ছিল তাদের স্থান।

ওড়িশার ডিজি(কারা) সন্তোষ উপাধ্যায় জানিয়েছেন; “শনিবার রাতে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে; পড়ে অনুকূল। তাঁকে ক্যাপিটাল হাসপাতালে নিয়ে গেলে; সেখানেই তার মৃ’ত্যু হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, হৃ’দরোগে আ’ক্রান্ত হয়ে তার মৃ’ত্যু হয়েছে”। আইকর চি’ট ফা’ন্ডের নামে; বাংলার বাজার থেকে; ৭ হাজার কোটি টাকা তুলেছিল অনুকুল মাইতি ও তাঁর দলবল। পুরো টাকাটাই গায়েব।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন