নিখিল জৈন যদি বলতেন, “নুসরতের সঙ্গে ওটা বিয়ে না, সহবাস ছিল”

1189
নিখিল জৈন যদি বলতেন,
নিখিল জৈন যদি বলতেন, "নুসরতের সঙ্গে ওটা বিয়ে না, সহবাস ছিল"

যদি এমনটা হত? নিখিল জৈন যদি বলতেন, নুসরতের সঙ্গে “ওটা বিয়ে না সহবাস ছিল”। তাহলে কি হত? ভাবতে পারছেন? একজন নারী হয়ে, হাজার হাজার মানুষকে স্বাক্ষী রেখে হিন্দুমতে বিয়ে করেও; নুসরত জাহান দিব্যি বলে দিলেন, ওটা বিয়ে নয়; সহবাস ছিল”। ভাবুন একবার, যদি ঠিক এটাই বলতেন; নুসরত জাহান? তাহলে কি হত; ভাবতেও পারছেন? গোটা পুরুষ জাতকে শূলে চড়িয়ে দেওয়া হত। পুরুষ জাতটা কতটা বেইমান; কতটা বিশ্বাসঘাতক; কতটা নোংরা; এই নিয়ে বসে যেত খাপ পঞ্চায়েত। ভাগ্যিস!

“ওসব মাথায় সিঁদুর লাগানো মিথ্যা; লোকসভায় স্বামী হিসাবে নিখিলের নাম লেখা মিথ্যা; রিসেপশনে মুখ্যমন্ত্রীর যাওয়াটাও মিথ্যা? কি সহজ সরল ব্যাপার! আড়ালে কেউ কেউ ‘দুঃশ্চরিত্রা বলবেন’। কিন্তু প্রকাশ্যে বলতে গেলে ঘাবড়াবেন। নারীবাদীরা ঝান্ডা তুলবে না; মিডিয়া চেঁচাবে না। বুদ্ধিজীবীও গেল গেল রব তুলবে না। শুধু আমি আপনি মিচকে হাসবো; তাও কিন্তু আড়ালে।

আরও পড়ুনঃ করোনা আবহে পকেট ভেন্টিলেটর আবিষ্কার করে, বিশ্বে সাড়া ফেলে দিলেন বাঙালি বিজ্ঞানী

কিন্তু ভাবুন যদি ঠিক উল্টোটা হত? এতক্ষণে মিডিয়ায় খাপ পঞ্চায়েত বসে যেত। নারীকে অপমান?! মানা যায়? এই বিষয়ে আমরা সবাই; প্রকাশ্যে খড়গহস্ত হই; এবং এক্ষেত্রেও হতাম। ঠিক যেমন ভারতীয় ক্রিকেটার; হার্দিক পান্ডিয়ার বেলায় করেছিলাম! একজন মহিলা প্রকাশ্যে; সবার সামনে করা বিয়েকে অস্বীকার করতেই পারে। কিন্তু একজন পুরুষ করলেই; সে ধ’র্ষক। মানে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধ’র্ষন। ভাবুন তো কি মজার জিনিস!

আরও পড়ুনঃ অভিষেকের অফিসে গিয়ে, ৩০-৩৫ জন নেতার ফেরার তালিকা দিলেন মুকুল

এই ঘোষণা যদি; নিখিল জৈন করতেন? সমাজের অধিকাংশ পুরুষ ও নারীবাদী সংগঠন-গুলো ধেই ধেই করে নাচতে নাচতে; নিখিল-কে ধ’র্ষক বানিয়ে দিত!! যদি নিখিল ঠিক একই কেসটা, আদালতে ঠুকে দেয়; “বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধ’র্ষন করেছেন নুসরাত”। কেস দাঁড়াবে তো? তার থেকেও বড় কথা; আমরা শুনেই হেসে উড়িয়ে দেব। এমন আবার হয় নাকি? সত্যিই হয় না! সমাজে কার অবস্থান কোথায়; আমাদের এই মানসিকতা দেখেই পরিচয় পাওয়া যায়। ভাগ্যিস!

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন