গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক কোন বৈঠকেই যাননি, মোদীর জন্মদিনে কেন দিল্লি হাজির মমতা

731
গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক কোন বৈঠকেই যাননি, মোদীর জন্মদিনে কেন দিল্লি হাজির মমতা/The News বাংলা
গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক কোন বৈঠকেই যাননি, মোদীর জন্মদিনে কেন দিল্লি হাজির মমতা/The News বাংলা

মানব গুহঃ দ্বিতীয় মোদী সরকারের শপথ গ্রহনই হোক; আর নীতি আয়োগের বৈঠকই হোক; বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বয়কট করেছিলেন নরেন্দ্র মোদীকে। ১০০ দিনের বেশি কাটিয়ে ফেলা; মোদী সরকারের ডাকা গুরুত্বপূর্ণ ও প্রশাসনিক কোন বৈঠকেই যাননি মমতা। কিন্তু হঠাৎ মোদীর জন্মদিনে কেন দিল্লিতে হাজির মমতা? এটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন; শুধু বাংলার নয়; ভারতের রাজনৈতিক মহলে।

২৬ শে আগস্ট ২০১৯; মাওবাদী রুখতে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ডাকা; দশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠকে গরহাজির ছিলেন মমতা। মাওবাদী প্রভাবিত দশ রাজ্যের মধ্যে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গও। মাওবাদী আক্রমণ ঠেকাতে; স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ মাওবাদী প্রভাবিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে; দিল্লীতে একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক ডাকেন। মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে; মাওবাদী রুখতে অনেক পরিকল্পনাই ঘোষণা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ডাকা এই বৈঠকে গরহাজির ছিলেন; বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃ বাংলায় সারদা কাণ্ডে তৎপর সিবিআই, দিল্লীতে মোদীর কাছে ছুটছেন মমতা

১৫ জুন ২০১৯; দিল্লিতে ‘নীতি আয়োগ’-এর গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে; যাননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছিলেন; “নীতি আয়োগের কোনও আর্থিক ক্ষমতা নেই। রাজ্য সরকারের পরিকল্পনায় অর্থ বরাদ্দেরও ক্ষমতা নেই। যে সংস্থার কোনও অর্থনৈতিক ক্ষমতাই নেই; তার বৈঠকে আমার হাজির থাকাটা অর্থহীন”। সাত নম্বর রেস কোর্স রোডে; প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে নীতি আয়োগের পরিচালন পরিষদের প্রথম বৈঠকে গরহাজির ছিলেন মমতা।

৩০ মে ২০১৯; দিল্লীতে প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান বয়কট করেন মমতা। যেভাবে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি কর্মীদের খুনের ঘটনায়; তৃণমূলকে অহেতুক অভিযুক্ত করা হচ্ছে; তারই অভিযোগ তুলে দ্বিতীয় মোদী সরকারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির হননি মমতা। সাংবিধানিক সৌজন্য ত্যাগ করে; প্রধানমন্ত্রীর শপথগ্রহণ বয়কট করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

লোকসভা ভোটের পরেও যে তিনি; প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে রাজনৈতিক সঙ্ঘাতের পথ ছেড়ে বেরিয়ে আসবেন না; তা বারবার বুঝিয়ে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। লোকসভা ভোটের প্রচার-পর্বে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে; ‘এক্সপায়ারি প্রাইম মিনিস্টার’ আখ্যা দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রধানমন্ত্রী বা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ডাকা; কোন বৈঠকেই তিনি হাজির থাকেননি।

কিন্তু এখন কি এমন ঘটল যে; মোদীর জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে; দিল্লি ছুটলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী? গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক সব বৈঠক বয়কটের পর; এখন মোদীর দরবারে কেন মমতা? এটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন