কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে উচিত শিক্ষা দেব, পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে ইমরান খানের হুমকি

425
কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে উচিত শিক্ষা দেব, পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে হুমকি ইমরান খানের হুমকি/The News বাংলা
কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে উচিত শিক্ষা দেব, পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে হুমকি ইমরান খানের হুমকি/The News বাংলা

কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে উচিত শিক্ষা দেব; পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে মঞ্চে দাঁড়িয়ে এমন হুমকিই দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন; “কাশ্মীরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পদক্ষেপ; একটি ‘কৌশলগত ভুল’; আর এজন্য তাকে ‘চরম মূল্য দিতে হবে”। যদিও ভারতের তরফে ইমরানের এই হুমকি নিয়ে কোন মন্তব্য করা হয়নি। তবে বিশ্বের দরবারে ইমরান যে আরও ছোট ও হাস্যকর হচ্ছেন; সেটা এদিনের পর পরিষ্কার।

১৪ই আগস্ট পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে; পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বুধবার পাকিস্তানের দখলে থাকা; কাশ্মীরের রাজধানী মুজফফরাবাদে যান। সেখানকার আইন পরিষদের এক বিশেষ অধিবেশনে; ইমরান বক্তব্যও রাখেন। সেখানেই তিনি ভারতকে হুমকি দিয়ে; এসব কথা বলেন বলেই জানা যাচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ মুম্বাই সমুদ্রতটে হাই অ্যালার্ট, আকাশে চক্কর দিচ্ছে সেনা হেলিকপ্টার

ভারতকে হুমকি দিয়ে; ইমরান বলেন; “নরেন্দ্র মোদী কৌশলগতভাবে ভুল করেছেন। তিনি তার শেষ কার্ডটি আগেই খেলে ফেলেছেন। তারা এখন কাশ্মীরকে আন্তর্জাতিক ইস্যু বানিয়ে ফেলেছে। আর এখানেই বড় ভুল করেছে মোদী সরকার”।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ভারতের সংবিধান থেকে; কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া আর্টিকেল ৩৭০-এর বিলোপ এবং কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেওয়ার প্রতি ইঙ্গিত করছিলেন। এরপরেই তিনি ভারতকে হুঁশিয়ারি দেন। বলেন; “কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে উচিত শিক্ষা দেব”।

আরও পড়ুনঃ ভয়ংকর গোয়েন্দা রিপোর্ট, ফের ভারতে আক্রমণের চক্রান্ত হাফিজ সইদের

আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় নিজেকে কাশ্মীরের একজন প্রতিনিধি হিসেবে বর্ণনা করে; ইমরান খান ভারতকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। তার ভাষায়, “যে কোন দুর্ঘটনার জন্য তৈরি থাকুক ভারত”। ইমরানের ভাষায়; কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার আশঙ্কাই করছে; ভারতীয় সেনা।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার ভাষণে কাশ্মীরের আইন পরিষদকে জানিয়েছেন যে; ভারত পাক অধিকৃত কাশ্মীরে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে। ভারতের তরফে যে কোন হামলার মোকাবিলা করার জন্য; পাকিস্তানের সরকার এবং সামরিক বাহিনী; প্রস্তুত রয়েছে বলে ইমরান খান আইন পরিষদকে জানান।

ইমরানের বক্তব্যের কোন জবাব দেওয়ার প্রয়োজনবোধ গত কয়েকদিন ধরেই করেনি ভারত সরকার। ইমরান খানকে ইতিমধ্যেই চিন সহ গোটা বিশ্ব; ভারতের আভ্যন্তরীণ ব্যাপারে নাক গলাতে নিষেধ করেছে। তবু ইমরান নিজেকে আরও হাস্যকর প্রমাণ করছেন; মত আন্তর্জাতিক মহলের।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন