লাদাখের পাহাড় চূড়া ভারতের দখলে, ভয় পেয়ে সেনা না বাড়ানোর আগাম ঘোষণা চিনের

5956
লাদাখের পাহাড় চূড়া ভারতের দখলে, ভয় পেয়ে সেনা না বাড়ানোর আগাম ঘোষণা চিনের
লাদাখের পাহাড় চূড়া ভারতের দখলে, ভয় পেয়ে সেনা না বাড়ানোর আগাম ঘোষণা চিনের

লাদাখের পাহাড় চূড়া ভারতের দখলে; ভয় পেয়ে সেনা না বাড়ানোর আগাম ঘোষণা চিনের। ভারত এই নিয়ে কিছু ঘোষণা করার আগেই; মঙ্গলবার চিনা বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ওয়্যাং ওয়েনবিনকে উদ্ধৃত করে; এই বিবৃতি প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস। গ্লোবাল টাইমস নিয়ন্ত্রন করে চিন সরকার। গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে, “সীমান্ত সমস্যা সমাধানের উদ্দেশে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায়; নতুন করে আর সেনা পাঠানো হবে না; বলে ঠিক করল ভারত ও চিন দুদেশই”। পূর্ব লাদাখের উত্তেজনা নিয়ে; সোমবার চোদ্দো ঘণ্টা ধরে; বৈঠক হয় ভারত ও চিনের মধ্যে। চিনের মলডো-তে হওয়া এই বৈঠক অবশ্য অসম্পূর্ণ ছিল; কারণ প্রত্যেকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা শেষ হয়নি। তাই কয়েক দিন পরে ফের বৈঠক হবে। তার আগেই, সীমান্তে সেনা না বাড়ানোর ঘোষণা চিনের।

২১ সেপ্টেম্বর ভারত ও চিনের মধ্যে; ষষ্ঠ কম্যান্ডার স্তরের বৈঠকে সাম্প্রতিক সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে; দুই পক্ষের মধ্যে মত বিনিময় হয়েছে। আলোচনায় পূর্ব লাদাখ থেকে সেনা প্রত্যাহার ও উত্তেজনা প্রশমিত করার লক্ষ্যে; ভারত ও চিনের মধ্যে একটি ‘পাঁচ বিষয়ক চুক্তি’ সম্পাদনার কথা হয়েছে। কোর কম্যান্ডারদের এই বৈঠকে; দুই পক্ষই একমত হয় যে; দুই দেশের সেনাকে সরে আসতে হবে, একে অপরের সামনে থেকে।

আরও পড়ুনঃ ২০ দিনে লাদাখে নতুন ৬টি শৃঙ্গের দখল নিল ভারতীয় সেনা

সোমবার লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার চিনা ভূখণ্ডের মলডো-তে; সকাল ১০টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত, ম্যারাথন বৈঠক করেন; দুই দেশের আধিকারিকরা। ভারতীয় দলের নেতৃত্বে ছিলেন; সেনার ১৪ কর্পস বাহিনীর; কম্যান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিং। ছিলেন, ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের চিন ডেস্কের প্রধান; যুগ্ম সচিব নবীন শ্রীবাস্তব। ছিলেন, লেফটেন্যান্ট জেনারেল পি জি কে মেনন; যিনি অক্টোবর মাসে, হরিন্দর সিংয়ের স্থলাভিষিক্ত হবেন। চিনা দলের নেতৃত্ব দেন, দক্ষিণ শিনজিয়াং সামরিক অঞ্চলের কম্যান্ডার; মেজর জেনারেল লিউ লিন।

মলডো-র ওই বৈঠকেই ভারত-চিনের মধ্যে; ‘পাঁচ বিষয়ক চুক্তি’ নিয়ে আলোচনা হয়। যার মধ্যে রয়েছে, সীমান্তে সেনা সরানো; প্রকৃত নিয়ন্ত্রনরেখায় সেনা বৃদ্ধি না করা; এইসব বিষয়গুলো। আর ভারত কিছু বলার আগেই; আগ বাড়িয়ে ঘোষণা করল চিন। লাদাখের পাহাড় চূড়াগুলি; ভারতের দখলে এসে যাওয়াতেই; ভয় পেয়েছে চিন; মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন