‘সব স্বাভাবিক’, অথচ হূহূ করে ছড়াচ্ছে করোনা

2723
'সব স্বাভাবিক', অথচ হূহূ করে ছড়াচ্ছে করোনা
'সব স্বাভাবিক', অথচ হূহূ করে ছড়াচ্ছে করোনা

‘সব স্বাভাবিক’, অথচ হূহূ করে ছড়াচ্ছে করোনা! ৫০ দিনের লকডাউনের পরেও; লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭৫ হাজার। প্রতিদিন গড়ে আক্রান্ত বারছে ৩-৪ হাজার করে। মঙ্গলবারও দেশে ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশ যাচ্ছে চতুর্থ লকডাউনের দিকে। তাহলে ‘সব স্বাভাবিক’ পরিস্থিতি তৈরি করে; সব খুলে দেওয়া হচ্ছে কেন? ট্রেন চলছে, বাস চলছে, প্লেনে বিদেশ থেকে ফিরছেন ভারতীয়রা। তাহলে আর লকডাউনের ফায়দা কোথায় হল? দেশ জুড়ে উঠেছে প্রশ্ন। বাংলাতেও একই প্রশ্ন উঠেছে।

করোনা এখনই বিদায় নেবেনা, তা ধরে নিয়েই এগোতে হবেঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মহারাষ্ট্র দিল্লি গুজরাতে, লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত। দেশের অধিকাংশ করোনা আক্রান্ত এই তিন রাজ্যে। অথচ এই তিন রাজ্যেও স্বাভাবিক করে দেওয়া হচ্ছে অনেক কিছুই। তিন তিনবার লকডাউন সত্ত্বেও; কেন কমে নি আক্রান্তের সংখ্যা? উঠেছে প্রশ্ন। তারপরেও সব স্বাভাবিক করা হচ্ছে কেন? পরিযায়ী শ্রমিকদের কেন ফিরিয়ে আনতে হচ্ছে? “যে যেখানে আছেন, থাকুন; কোন অসুবিধা হবে না”; প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা চরম ব্যর্থতায় পরিণত হল কেন? উত্তর নেই।

গো ফর লোকাল; BSNL, ONGC, Bengal Chemicals, Air India

বাংলাতেও বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। খুলে যাচ্ছে দোকানপাট। গোটা দেশের সঙ্গে রাজ্যেও; খুলে গেছে মদের দোকান। কলকাতায় হূহূ করে বাড়ছে; করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এর মধ্যেই বুধবার থেকে চালু হল; সরকারি বাস পরিষেবা। আটকানো যাবে তো; আক্রান্তের সংখ্যাকে? উঠে গেল প্রশ্ন। ইতিমধ্যেই আজমের থেকে করোনা নিয়ে বাংলায় ফিরেছেন; বেশ কিছু মানুষ। যার জেরে, মালদা ও দক্ষিন ২৪ পরগণা জেলায়; বেড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।

করোনা বিপদে বাঙালিকে খেতে দেয় নি ভিন রাজ্য

কিন্তু দেশে ও রাজ্যে; এই সব স্বাভাবিক দেখানোর কাণ্ড কেন? অর্থনীতির দোহাই দিয়ে; লক ডাউনের মধ্যেই সব ছাড় দিয়ে দেওয়া; আর কিছুদিন পড়ে মারাত্মক হয়ে যাবে না তো? আশঙ্কায় সাধারণ মানুষ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন