ফের বিস্ফোরক বাবুল সুপ্রিয়, বাংলার রাজনীতিই সবচেয়ে দূষিত

258
ফের বিস্ফোরক বাবুল সুপ্রিয়, বাংলার রাজনীতিই সবচেয়ে দূষিত/The News বাংলা
ফের বিস্ফোরক বাবুল সুপ্রিয়, বাংলার রাজনীতিই সবচেয়ে দূষিত/The News বাংলা

দুর্গা পুজো শেষ হতে না হতেই; শহর কলকাতা মেতে উঠেছে চলচ্চিত্র আর বিজ্ঞান উৎসবে। অথচ উপস্থিত নেই রাজ্যের কোনও মন্ত্রী। পুজোর কার্নিভ্যালে যাদের দল বেঁধে দেখা যায়; তাঁরা কেউ নেই বিজ্ঞান মঞ্চে! সম্প্রতি কলকাতায় চলছে ভারতের আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসব। এই উৎসবের আয়োজক খোদ রাজ্য সরকার। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী তো অনেক দুরের কথা; অনুষ্ঠানে উপস্থিত নেই রাজ্যের কোনও মন্ত্রী। রাজ্যের কোনও প্রতিনিধির দেখা না পেয়ে; পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে একহাত নিলেন আমন্ত্রিত কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি বলেন; পশ্চিমবঙ্গে এই মুহূর্তে রাজনীতি হচ্ছে সবচেয়ে দূষিত।

বাবুল সুপ্রিয় জানিয়েছেন; ‘আমরা এখানে অনেক আশা নিয়ে এসেছি। পঞ্চমবারের জন্য আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসব পশ্চিমবঙ্গে হচ্ছে। কিন্তু রাজ্যের কোন মন্ত্রী এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত নেই। কলকাতার রাজনীতি দূষিত হচ্ছে দিনের পর দিন’। একজন বাঙালি হিসাবে লজ্জা প্রকাশ করে তিনি বলেন; অন্য রাজ্য থেকে মন্ত্রীরা উপস্থিত; কিন্তু দেখা নেই রাজ্যের কোন মন্ত্রীর।

বাংলায় ফের বাড়ছে জেলার সংখ্যা, দুটি জেলা বেড়ে হচ্ছে চারটি

তিনি জানিয়েছেন; এই অনুষ্ঠান উপলক্ষে রাজ্যর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি দফতরের মন্ত্রীর কাছে নিমন্ত্রনপত্র পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু উত্তর আসেনি সেখান থেকে। অসমের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী কেশব মহান্ত; মধ্যপ্রদেশের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী পি.সি শর্মা সহ বিভিন্ন রাজ্যর রথী মহারথীরা এই বিজ্ঞান উৎসব উপলক্ষে উপস্থিত হয়েছিলেন। কিন্তু দেখা মেলেনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর।

আসানসোলের বিজেপি সাংসদ জানিয়েছেন; যদি রাজ্যর মন্ত্রীরা উপস্থিত না থাকেন; মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কোনও সভায় না যান তাহলে কিভাবে আশা করব রাজ্যর সমস্যা নিয়ে তারা দিল্লিতে গিয়ে কথা বলবেন। এছাড়াও তিনি বলেন কেবলমাত্র প্রধানমন্ত্রীকে একদিন আচমকা ফুল উপহার দিলেই কোন সমস্যার সমাধান হয় না।

এছাড়াও দূষণ নিয়ন্ত্রন নিয়ে তিনি জানিয়েছেন; তাঁদের তরফ থেকে চিঠি দেওয়া হলেও; কোন উত্তর আসেনি। শস্য পোড়ানো কলকাতায় দূষণের ক্ষেত্রে কোন ব্যাপার নয়; তবে কলকাতাতে দূষণের কারণ কি তা জানতে প্রয়োজন কথা বলার। কিন্তু তা হচ্ছে না। বাবুল সুপ্রিয়র করা মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় অবশ্য বলেন; ‘আমি শুধু এটুকু বলতে পারি; বিজেপি দেশে যে কী ধরণের সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়াচ্ছে তা পুরো দেশই জানে’।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন