ফের বিশ্বকাপে ভারতের হাতে নাস্তানাবুদ পাকিস্তান, বিশ্বকাপে ফল ৭-০

4961
ফের বিশ্বকাপে ভারতের হাতে নাস্তানাবুদ পাকিস্তান, বিশ্বকাপে ফল ৭-০/The News বাংলা
ফের বিশ্বকাপে ভারতের হাতে নাস্তানাবুদ পাকিস্তান, বিশ্বকাপে ফল ৭-০/The News বাংলা

ফের বিশ্বকাপে ভারতের হাতে নাস্তানাবুদ পাকিস্তান; বিশ্বকাপে ফল ৭-০। ক্রিকেট বিশ্বকাপে ৭ বার ভারতের মুখোমুখি হয়ে; ৭ বারই হারল পাকিস্তান। বৃষ্টিতে পাকিস্তান ব্যাটিং চলাকালিন ৩৫ ওভারে; ম্যাচ বন্ধ হবার সময় পাকিস্তানের স্কোর ১৬৬/৬। টসে হেরে আগে ব্যাট করে ভারতের স্কোর; ৫ উইকেটে ৩৩৬। ফলে এই ম্যাচও যে হারতে চলেছে পাকিস্তান তা জলের মত পরিষ্কার।

একদিনের বিশ্বকাপে এটা সপ্তমবার; যখন ভারত আর পাকিস্তান একে অপরের মুখোমুখি হল। আজ পর্যন্ত ক্রিকেট বিশ্বকাপে যে ৬টি ম্যাচ খেলা হয়েছে; সেই সমস্ত ম্যাচেই ভারতীয় দল পাকিস্তানকে হারিয়ে দিয়েছে। এবার টিম ইন্ডিয়া সপ্তমবারের জন্য পাকিস্তানকে; নাস্তানাবুদ করে হারাল।

ওয়ানডে ক্রিকেটের এখনও পর্যন্ত ইতিহাসে; দুই দেশের মধ্যে মোট ১৩১টি ম্যাচ খেলা হয়েছে। আর এখানে পাকিস্তানের পাল্লা ভারি থেকেছে। পাকিস্তান ভারতকে ৭৩ বার হারিয়েছে; অন্যদিকে ভারতীয় দল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৫৪টি ম্যাচ জিতেছে। চারটি ম্যাচের কোনো পরিণাম হয়নি।

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে; এতদিন সর্বোচ্চ রান ছিল ৩০০। চার বছর আগের বিশ্বকাপে; ভারত এই রান করেছিল। ম্যাঞ্চেস্টারে রোহিত শর্মার ব্যাট কথা বলায়; টিম ইন্ডিয়া করল পাঁচ উইকেটে ৩৩৬ রান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান; প্রথমেই হারায় ইমাম উল হকের উইকেট। এদিনই বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে নামলেন বিজয় শঙ্কর। প্রথম বলেই ইমামের উইকেট তুলে নেন তিনি। ভুবনেশ্বর কুমারের পরিবর্তে বল করতে এসে সফল বিজয়। বল করার সময়ে পড়ে গিয়ে হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পান ভুবি। বিশ্বকাপে এখনও অনেক ম্যাচ বাকি। ভুবির চোটটা কেমন; তা এখনই জানা যায়নি।

রবিবার টস জিতে; ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের চাপে ফেলে দিতে চেয়েছিলেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। রোহিত শর্মার দুরন্ত ১৪০ রান; বিরাট কোহালির ৭৭ রানের সৌজন্যে; ভারতই উল্টে চাপে ফেলে দেয় পাকিস্তানকে। রোহিত শর্মা চলতি বিশ্বকাপে; নিজের দ্বিতীয় শতরান করে ফেললেন এদিন।

ভারত-পাক ম্যাচ সব সময়েই চাপের। এই ম্যাচে পরে রান তাড়া করা; রীতিমতো কঠিন ব্যাপার। আবার ভারত রানের পাহাড় চাপিয়েছে; পাকিস্তানের উপরে। ম্যাচের যা অবস্থা তাতে পাকিস্তানের হার নিশ্চিত। খেলা শুরু হলেও; ডাকওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতি পাকিস্তানের হিসেব আরও জটিল করে দিতে পারে। খেলা আর না হলেও ভারত জিতে গেছে; এই ম্যাচে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন