কাশ্মীরে বিপথগামী যুবকদের ঘরে ফেরাবার নতুন উদ্যোগ শুরু করলো ভারতীয় সেনা

783
কাশ্মীরে বিপথগামী যুবকদের ঘরে ফেরাবার নতুন উদ্যোগ শুরু করলো ভারতীয় সেনা/The News বাংলা
কাশ্মীরে বিপথগামী যুবকদের ঘরে ফেরাবার নতুন উদ্যোগ শুরু করলো ভারতীয় সেনা/The News বাংলা

জম্মু কাশ্মীরে ভারতীয় সেনা শুরু করলো; বিপথগামী যুবকদের ঘরে ফেরাবার নতুন উদ্যোগ। ১৫ কর্পের কম্যান্ডার; লেফটান্যান্ট জেনারেল জিত সিং ধিঁলো এই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছেন জম্মু কাশ্মীর জুড়ে। নিরীহ কাশ্মীরি যুবকদের ভুল বুঝিয়ে; যাতে জঙ্গি সংগঠন গুলি নিজেদের দলে না টানতে পারে তার জন্যই এই পরিকল্পনা নিয়েছে ভারতীয় সেনা। ভারতীয় সেনার উদ্যোগে; এই নতুন পরিকল্পনায় এখনও পর্যন্ত প্রায় ৫০ জন বিপথগামী যুবককে; তাদের ঘরে ফিরিয়ে দিয়েছে ভারতীয় সেনার ১৫ কর্প বাহিনী।

১৫ কর্পের কম্যান্ডার; লেফটান্যান্ট জেনারেল জিত সিং ধিঁলো নিজে এই পরিকল্পনার বাস্তব রুপ দিতে উদ্যোগী হয়েছেন। জম্মু কাশ্মীরের নতুন প্রজন্মের শিক্ষা যাতে সঠিক রাস্তায় হয়; তার উদ্যোগ নেবার সঙ্গে পরিবারের দায়িত্বের উপরে বিশেষ জোর দিয়েছেন তিনি। শুরু হয়েছে কাজ।

আরও পড়ুন: হোয়াটসঅ্যাপ ও ফোন ট্যাপ নিয়ে মমতাকে বিঁধলেন রাজ্যপাল

উপত্যকায় বহু পরিবারের ছেলে নিখোঁজ হয়ে যায়। লেফটান্যান্ট জেনারেল জিত সিং ধিঁলো; সেই সমস্ত পরিবারের সঙ্গে কথা বলে নিখোঁজ যুবকদের ফেরানোর উদ্যোগ নিয়েছেন। আর এই উদ্যোগের ফলে; অনেক পরিবার তাদের নিখোঁজ সন্তানকে খুজে পেয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমের কাছে পরিচয় গোপন রেখে; কাশ্মীরি অভিভাবকদের বার্তা শেয়ার করেছেন লেফটান্যান্ট জেনারেল জিত সিং ধিঁলো। তিনি জানিয়েছেন; অনেক ক্ষেত্রে মায়ের সঙ্গে কথা বলে বিপথগামী যুবকরা আত্মসমর্পণের রাস্তা বেছে নিয়েছে।

আরও পড়ুন: ইমরান খানের ডাকে সাড়া দিয়ে, পাকিস্থান যেতে মোদী সরকারের অনুমতি চান কংগ্রেস নেতা

কাশ্মীরের সাধারন মানুষ শান্তি চায়। জেনারেল জিত সিং ধিঁলো জানিয়েছেন; জম্মু কাশ্মীর উপত্যকার মানুষের সহযোগিতায় এই নতুন পরিকল্পনা সফল হয়েছে। কাশ্মীরের আগামী প্রজন্মকে জঙ্গি হয়ে ওঠার প্ররোচনা থেকে বিরত রাখতে পরিবারে বাবা ও মাকে সন্তানের সঙ্গে কথা বলে তাদের মানসিক অবস্থা বোঝার চেষ্টা করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

লেফটেন্যান্ট ধিঁলো জানিয়েছেন; জঙ্গি দলে যোগ দেওয়া সাত শতাংশ যুবক হাতে অস্ত্র তোলার ১০ দিনের মধ্যে মারা যায়। ৯ শতাংশ মারা যায় একমাসের মধ্যে। ১৭ শতাংশ ৩ মাসের মধ্যে; ৩৬ শতাংশ ৬ মাস এবং ৬৪ শতাংশ একবছরের মধ্যে মারা যায়। তাই উগ্রপন্থা ছেড়ে কাশ্মীরি যুবকদের ভারতীয় সেনাবাহিনীতে আনতে; বদ্ধ পরিকর কেন্দ্র সরকার ও ভারতীয় সেনা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন