ভারতের হাতে আসছে ভয়ঙ্কর ‘স্কাইস্ট্রাইকার’, বালাকোটের মত হামলা আবার হবে চিন্তায় পাকিস্তান

5573
ভারতের হাতে আসছে ভয়ঙ্কর 'স্কাইস্ট্রাইকার', বালাকোটের মত হামলা আবার হবে চিন্তায় পাকিস্তান
ভারতের হাতে আসছে ভয়ঙ্কর 'স্কাইস্ট্রাইকার', বালাকোটের মত হামলা আবার হবে চিন্তায় পাকিস্তান

ভারতের হাতে আসছে ভয়ঙ্কর ‘স্কাইস্ট্রাইকার’; বালাকোটের মত হামলা আবার হবে চিন্তায় পাকিস্তান। ভারতীয় সেনাবাহিনী জরুরীভিত্তিতে শক্তি বৃদ্ধির জন্য; ১০০ টির বেশি ‘স্কাইস্ট্রাইকার’ কেনার জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। যা চীন, পাকিস্তানের কপালে; বেশ চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে। চীন ও পাকিস্তানের আগ্রাসনের পরিপ্রেক্ষিতে, নিরাপত্তার চাহিদা পূরণের জন্য; ভারতের প্রতিরক্ষা কৌশলের এটি একটি বিশেষ কার্যক্রম। বেঙ্গালুরুর কোম্পানি আলফা ডিজাইন-কে; এই অর্ডার দেওয়া হয়েছে।

আদানীর আলফা ডিজাইন কোম্পানি (Alpha Design); এবং ইসরায়েলের এলবিট সিস্টেমের (Elbit Security Sysy Systems বা ELSEC)-র যৌথ উদ্যোগে; ১০০ র বেশি স্কাইস্ট্রাইকারস (Skystrikers) বেঙ্গালুরুতে তৈরি হবে। এলবিট সিস্টেমের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে; স্কাইস্ট্রাইকারের বিস্তারিত বিবরণ দেওয়া রয়েছে। এই সশস্ত্র ড্রোন, দীর্ঘ দূরত্বের সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে; আঘাত করতে সক্ষম। এই স্কাইস্ট্রাইকার কোন এলাকার, ১০০ কিমি ভেতরে ঢুকে; শত্রুদের খতম করতে পারবে।

আরও পড়ুনঃ বাঙালি ডিজাইনার সব্যসাচীর ৩ কোটি ড্রেসে নওয়াজ শরিফের নাতবউ, পার প্লেট সাড়ে ৩ লাখ

১০০ কোটি টাকার; চুক্তি সই হয়েছে। এই স্কাইস্ট্রাইকার-গুলি ভারতীয় সেনার হাতে এলে; বালাকোটের মত জঙ্গি ডেরায় হামলা করাটা আরও অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে; মনে করছে আন্তর্জাতিক প্রতিরক্ষা মহল। একটি স্কাইস্ট্রাইকার হল, এমন একটি মানুষহীন বিমান বা দ্রোণ; যা অপারেটর-নির্ধারিত লক্ষ্যগুলি ফুসেলেজে ইনস্টল করা ওয়ারহেড দিয়ে লক্ষ্য স্থির এবং সঠিক নিশানায় আঘাত করতে পারে। ড্রোনগুলি ব্যাপক ধ্বংস করতে সক্ষম এবং তারা গোলাবারুদ ও রকেট বহন করতে পারে; এবং অনেক দূর থেকে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করতে পারে।

আরও পড়ুনঃ ‘তোদের দুর্গার অবস্থা দেখ’, বিজেপি মহিলা কর্মীর ফেসবুক পোস্টে ক্ষুব্ধ তৃণমূল যাচ্ছে পুলিশের কাছে

ভারতের ক্ষতি করার জন্য, পাকিস্তান ও চীন; তালিবানের কাঁধে বন্দুক রেখে গুলি করলে তাতে অবাক হওয়ার কিছুই নেই। তেমন সম্ভাবনা; বেশ জোরালো হচ্ছে। কারণ তালিবান সরকার আসার পরই; চীন আফগানিস্তানকে মোটা টাকা ফান্ডিং করার ঘোষণা করেছে। যা মূলত তালিবানের নেতাদের হাতেই; যেতে চলছে। ফলে আগেভাগেই সাবধানতা অবলম্বন করছে ভারত; সেনাবাহিনী নিজেদের আরও শক্তিশালী করে নিচ্ছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন