সেনা দিবসে মানবিকতার নজির গড়লেন ভারতীয় সেনা

1170
সেনা দিবসে মানবিকতার নজির গড়লেন ভারতীয় সেনা/The News বাংলা
সেনা দিবসে মানবিকতার নজির গড়লেন ভারতীয় সেনা/The News বাংলা

সেনা দিবসে মানবিকতার নজির গড়লেন; ভারতীয় সেনা। আজ সেনা দিবস। আজ তাদের দিন যারা; বিনিদ্র প্রহরায় রাত জাগেন সীমান্তে; সুনিশ্চিত করে রাখেন দেশবাসীর নিরাপত্তা। কড়া প্রহরায় থাকেন; সর্বদা যাতে দেশে কোনও শক্রু প্রবেশ করে আমার আপনার ঘুম কেড়ে নিতে না পারে। তাদের এই স্পেশাল দিনে তারা আরও একবার নজির গড়লেন।

তীর্ব ঠান্ডায় জমে গিয়েছে; কাশ্মীর। ডাল লেকের জল এখন জমাট বাঁধা বরফ। সারাক্ষন তুষার বৃষ্টিতে উপত্যকায় পা রাখা মুশকিল হয়ে পড়েছে। ভূস্বর্গ এখন জমে কুলফি।

আরও পড়ুন অমিত শাহের জায়গায় কে হচ্ছেন বিজেপির নতুন সর্বভারতীয় সভাপতি

জনসাধারণের বাড়ির বাইরে বেরোনোর উপায় নেই। স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যেতে হলেও; রাস্তায় বেরোনোর আগে ভাবনা চিন্তা করতে হচ্ছে। এমন সময়েই এক অন্তঃসত্ত্বা মহিলার প্রসব যন্ত্রনা ওঠে।

হাসপাতাল কিভাবে পৌঁছানো যায়; সেই ভেবে শামিমার পরিবার কোনও পথই খুঁজে পাচ্ছিল না। তখনই দেবদূতের মতো উদয় হন; ভারতীয় সেনাবাহিনীর জওয়ানরা।

চার ঘণ্টার পথ পায়ে হেঁটে; শামিমাকে হাসপাতালে পৌঁছে দেন। আর সেনা দিবসে সেনাদের এমন মহৎ কাজকে; খোদ কুর্নীশ জানান দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেনাদের এই মহানতার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।

যেখানে দেখা যাচ্ছে; একশ জন জওয়ান নিজেরা একটি স্থানীয় স্ট্রেচার বানিয়ে বরফের মাঝখান দিয়ে; ওই অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে নিয়ে যাচ্ছেন হাসপাতালে।

সন্তানের জন্মের পর সুস্থ রয়েছে মা ও শিশু। কাশ্মীরে যা পরিস্থতি তাতে শামিমাকে হাসাপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য; অ্যাম্বুল্যান্স পাওয়া যায়নি। এইভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ায়; সেনা জওয়ানদের কুর্নীশ জানিয়েছে; গোটা দেশ।

রিটুইটে প্রধানমন্ত্রী লেখেন;’বীরত্ব ও পেশাদারিত্বের জন্য পরিচিত আমাদের সেনা। তাদের মানবিকতাই তাদের ঝুলিতে এত সম্মান এনে দিয়েছে। আমি সেনার জন্য গর্বিত!’

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন