অবসরের পরেও নিজেদের পদে বহাল থাকেন ভারতীয় সেনা আধিকারিকরা

481
অবসরের পরেও নিজেদের পদে বহাল থাকেন ভারতীয় সেনা আধিকারিকরা/The News বাংলা
অবসরের পরেও নিজেদের পদে বহাল থাকেন ভারতীয় সেনা আধিকারিকরা/The News বাংলা

ইংরেজিতে একটা কথা প্রচলিত আছে; “ওয়ান্স এ সোলজার, অলওয়েজ এ সোলজার”। এই কথা, ব্যবহার করা হয় ভারতীয় সেনাদের সম্পর্কেও। কিন্তু কেন আর কি কারণে এই কথাটি ব্যবহার করা হয় তার সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই পরিস্কার ধারণা নেই। আসুন জেনে নেওয়া যাক, ভারতীয় সেনারা অবসরের পরেও কেন সারাজীবন নিজেদের পদেই থেকে যায়।

সংবিধানের 18 অনুচ্ছেদে ডিফেন্স সার্ভিস অফিসারদের সাংবিধানিক অধিকার দেওয়া আছে; যে তাঁরা তাঁদের অবসরের পরেও নিজেদের পদেই বহাল থাকবেন। সংবিধান অনুসারে বলা হয়; “র‍্যাঙ্ক নেভার রিটায়ার, অফিসার ডাস”।

আরও পড়ুনঃ ভারতের সেরা গুপ্তচর ব্লাক টাইগারের রোমহর্ষক কাহিনী, র এজেন্ট হয়েছিলেন পাক সেনাবাহিনীর মেজর

অর্থাৎ; ভারতীয় সেনা অফিসাররা অবসরপ্রাপ্ত হতে পারে, কিন্তু তাদের প্রাপ্ত পদমর্যাদা কোনদিনও অবসর নেয় না। এটা ভারতীয় সেনা অফিসারদের দেওয়া সবচেয়ে বড় সম্মান দেশের পক্ষ থেকে, যা সংবিধানে লেখা আছে।

আমাদের মনে রাখতে হবে, দেশের প্রতিরক্ষায় থাকা অফিসারদের দায়িত্ব ও দায়িত্বের প্রকৃতি; অন্যান্য সরকারি বা বেসরকারি চাকরির থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। শুধু তাই নয়; তাদের উপরেই দেশের সুরক্ষার ভার থাকে।

আরও পড়ুনঃ ফাঁসির আগে, দীনেশ গুপ্ত ঠিক কি বলেছিলেন নিজের প্রিয় বৌদিকে

দেশের প্রতিরক্ষায় কর্মরত অফিসাররা তাদের পদ পান রাষ্ট্রপতি কর্তৃক। অর্থাৎ; সরাসরি রাষ্ট্রপতি তাঁদের সেই বিশেষ পদে উত্তীর্ণ করেন। এর ফলে তিনি নিজের সৈন্যদের আদেশ দেবার অধিকার অর্জন করেন।

এই পদ গুলির দায়িত্বও অনেক বেশি। কোন ডিফেন্স অফিসার তার কর্তব্যে অবহেলা করতে পারবে না। অর্থাৎ; অন্যান্য চাকরির মত দায়িত্ব পছন্দ না হলে প্রতিবাদ করা, পদত্যাগ করা বা স্থানান্তরিত হতে অস্বীকার করতে পারবেন না। অর্থাৎ সাধারণ সরকারি বা বেসরকারি অফিসারদের মত স্বাধীন মতামত পোষণ করার অধিকার তাদের থাকে না। দেশের সিদ্ধান্ত পালন করতে তারা বাধ্য থাকেন।

এইসব কারণেই বলা হয়ে থাকে, একজন সৈনিক এর জীবনে তার নিজের থেকেও বেশি অধিকার থেকে রাষ্ট্রের। অর্থাৎ, একজন প্রতিরক্ষা অফিসারের জীবন রাষ্ট্রের সম্পত্তি। অনেক সময় দেখা গেছে; অবসরের পরেও একজন সেনা আধিকারিকদের প্রতিরক্ষার বিভিন্ন কাজ সামলাতে হয়। এটা তাঁর রাষ্ট্রের প্রতি দায়বদ্ধতা হিসাবেই ধরা হয়ে থাকে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন