পুলওয়ামা কান্ডে জঙ্গিদের ব্যবহৃত গাড়ির মালিককে খতম করল ভারতীয় সেনা

9790
পুলওয়ামা কান্ডে ব্যবহৃত জঙ্গিদের গাড়ির মালিককে গুলিবিদ্ধ করল ভারতীয় সেনা জওয়ান/The News বাংলা
পুলওয়ামা কান্ডে ব্যবহৃত জঙ্গিদের গাড়ির মালিককে গুলিবিদ্ধ করল ভারতীয় সেনা জওয়ান/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামা কান্ডে; যে পাক সন্ত্রাসবাদীর গাড়ি ব্যবহার করা হয়েছিল; সেই সাজাদ আহমেদ ভাটকে খতম করল ভারতীয় সেনা। পুলওয়ামা কাণ্ডে জড়িত দুই জইশ-ই-মহম্মদের সদস্য; বিজবেহারায় গুলিযুদ্ধে নিকেশ হয়েছে। বড় সাফল্য ভারতীয় সেনার।

উত্তর কাশ্মীরের অনন্তনাগে; মারহামা ও বিজবেহারা এলাকায় দুই জঙ্গি নিহত হয়। তাদের মধ্যে একজন হল সাজাদ আহমেদ ভাট; যার গাড়ি এই বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি লেথপরায় জঙ্গি আক্রমণে ব্যবহার করা হয়েছিল; শহিদ হয়েছিল ৪৯ জন ভারতীয় জওয়ান।

পুলিশ জানায়, সাজাদ ভাট তার সহযোগীদের সঙ্গে এই গুলির লড়াইয়ে নিহত হয়। সাজাদ ভাট পুলওয়ামা হামলার কিছুদিন আগেই জইশ-ই-মহম্মদের সদস্য হিসেবে যোগ দেয়। মহম্মদ ইকবাল ভাটের ছেলে সাজাদ ভাট ছিল; মারহামা সংঘের লোক। একজন সৈনিকসহ অন্যান্য দুই ব্যক্তি আহত হন এই গুলিযুদ্ধে।

আরও পড়ুন: রাহুল নয়, লোকসভায় কংগ্রেস দলনেতা বাংলার অধীর চৌধুরী

কাশ্মীরে ফের সন্ত্রাসবাদী হামলা; নিকেশ তিন জঙ্গি। সন্ত্রাসবাদের আশঙ্কা এখনও ঘনাচ্ছে দেশের মাথায়। ইতিমধ্যে পুলওয়ামায় সন্ত্রাসবাদ হামলার সম্ভাবনা নিয়ে; সতর্ক করেছিল পাকিস্তান। সেই হামলার কবলে পরেই; আহত হলেন ৯ জন সেনা। অন্যদিকে অনন্তনাগে জওয়ানদের গাড়ি লক্ষ্য করে বিস্ফোরণ চালায় সন্ত্রাসবাদীরা; মৃত্যু হয় এক আর্মি মেজরের।

গত ফেব্রুয়ারিতে ঠিক যেভাবে হামলা চালানো হয়; সেভাবেই আরও একবার; জঙ্গি হামলা চালানোর চেষ্টা হয়েছিল। আব্দুল আহাদ মীর নামের এক সাধারণ নাগরিকও; বিস্ফোরণে জখম হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে তিন সন্ত্রাসবাদীরও; তারা জইশ-ই-মহম্মদের সদস্য।

ঊত্তপ্ত জম্বু-কাশ্মীরের অনন্তনাগ। গুলির লড়াইয়ে জওয়ানদের হাতে আটক হয়েছে তিন সন্ত্রাসবাদী। পুলিশ সহ আরও জওয়ানদের মোতায়েন করা হয়েছে ঘটনাস্থলে। গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই শুরু হয়েছে ভারত-পাক সন্ত্রাসবাদীদের লড়াই।

সূত্রের খবর, অনন্তনাগের বিদরু আকিনগাম এলাকায়; জঙ্গিদের উপস্থিতির খবর পেয়ে যৌথ বাহিনী তল্লাশি শুরু করে। তখনই জওয়ানদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে জঙ্গিরা। সংঘর্ষে সেনার এক মেজর গুরুতর আহত হন; পরে সেনা হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। আহত হয়েছেন আরও একজন মেজর। ঘটনার জেরে এলাকায় ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে।

পাকিস্তানের সতর্কবার্তার পর; এই ঘটনায় উদ্বিগ্ন প্রশাসন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জম্মু-কাশ্মীর সফরে যাওয়ার আগে; নিরাপত্তা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে ব্যস্ত প্রশাসন। তার মাঝে এই ঘটনায় চিন্তিত কেন্দ্রিয় সরকার।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন