হঠাৎ করে বাংলার স্কুলে স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধের উদ্যোগ কেন

2522
হঠাৎ করে বাংলার স্কুলে স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধের উদ্যোগ কেন
হঠাৎ করে বাংলার স্কুলে স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধের উদ্যোগ কেন

হাড়োয়া চৌহাটা আদর্শ বিদ্যালয়ের পর হুগলীর হরিপাল থানার বলাইবেড় প্রাথমিক বিদ্যালয়। অভিযোগ একই। স্কুলে সরস্বতী পুজো করার অনুমতি নেই। স্কুলে সরস্বতী পুজো করা নিয়ে দুজায়গাতেই চলছে ঝামেলা। কিন্তু হঠাৎ করে বাংলার স্কুলে স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধের উদ্যোগ কেন? রাজ্য সরকার উদাসীনই বা কেন? মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় কি এবার স্কুলে স্কুলে সরস্বতী পুজো করা বন্ধ হয়ে যাবে? উঠে গেছে প্রশ্ন।

বাংলার স্কুলে সরস্বতী পূজা বন্ধ কেন ? গল্প হলেও সত্যি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে; গত ৮ বছর ধরে এলাকায় সংখ্যাগুরু মুসলিমদের দাপটে হিন্দু বিদার্থীদের ইচ্ছা সত্ত্বেও; হাড়োয়া চৌহাটা আদর্শ বিদ্যালয়ে সরস্বতী পূজা করা যায় নি। তার আগে; এই স্কুলে সরস্বতী পূজা হতো। কেন হঠাৎ করে স্কুলে বন্ধ হয়ে গেল; সরস্বতী পূজা? বাংলার স্কুলে সরস্বতী পূজা হবে নাই বা কেন? উঠে গেল প্রশ্ন।

হাড়োয়া এলাকার জনবিন্যাস প্রায় এখন ৪০ শতাংশ হিন্দু এবং ৬০ শতাংশ মুসলিম। গত ৮ বছরের মত; এবারও হিন্দু ছাত্ররা সরস্বতী পুজা করবেই বলে; পণ করে এবং রাস্তায় ধর্নায় বসে। তাদের অভিযোগ; স্থানীয় ও বাইরে থেকে আগত মুসলিম সম্প্রদায় শক্তি ঐক্যবদ্ধ হয় এবং তাদের প্ররোচনায় বিদ্যালয়ের মুসলিম ছাত্ররাও পুজা চিরতরে বন্ধ থাকবে এমন দাবিতে ক্ষেপে ওঠে। এই ব্যাপারে উদাসীন থাকে; পুলিশ প্রশাসনও। সাম্প্রদায়িকতার দোহাই দিয়ে; চুপ সংবাদমাধ্যমও।

এলাকার হিন্দুরা ও ছাত্র ছাত্রীদের বাবা মায়েরা জানাচ্ছেন; “মমতার প্রশাসন উদাসীন। এবার বুদ্ধিজীবীরা, সেক্যুলাররা, সাম্যবাদীরা, মানবতাবাদীরা নির্বিকার, দেখেও না দেখার ভান করে। বিচারের বাণী নিরবে; নিভৃতে কাঁদে। একটা তথ্যও ভুল নয়; যাচাই করে নিন”।

হাড়োয়া চৌহাটা আদর্শ বিদ্যালয়ের পর হুগলীর হরিপাল থানার বলাইবেড় প্রাথমিক বিদ্যালয়। সমস্যার হঠাৎ আগমন। স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধের উদ্যোগ। কিন্তু কেন? মুসলিম সম্প্রদায় কেন স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধের উদ্যোগ নিচ্ছে? প্রশাসন উদাসীন কেন? কেন স্কুলে করতে প্রশাসনের অনুমতি নিতে হবে? উঠে গেছে প্রশ্ন।

বাচ্চা ছেলেমেয়েরা শিক্ষক শিক্ষিকাদের সঙ্গে, স্কুলে স্কুলে সরস্বতী পুজো করবে, এটাই তো স্বাভাবিক। কি এমন হল যে, স্কুলে স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধের উদ্যোগ নেওয়া শুরু হল। প্রশাসন কেন স্কুলে সরস্বতী পুজোর অনুমতি দিতে সাহস করছে না?

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন