দিনের পর দিন লড়াইয়ের দাম নেই, সিপিএম থেকে এসেই বিজেপি রাজ্য কমিটিতে জ্যোতির্ময়ী শিকদার

2004
দিনের পর দিন লড়াইয়ের দাম নেই, সিপিএম থেকে এসেই বিজেপি রাজ্য কমিটিতে জ্যোতির্ময়ী
দিনের পর দিন লড়াইয়ের দাম নেই, সিপিএম থেকে এসেই বিজেপি রাজ্য কমিটিতে জ্যোতির্ময়ী

সিপিএম থেকে বিজেপিতে যোগদান করেই; রাজ্য কর্মসমিতির সদস্যপদ পেয়েছেন জ্যোতির্ময়ী শিকদার। “দিনের পর দিন লড়াইয়ের দাম নেই; সিপিএম থেকে এসেই বিজেপি রাজ্য কমিটিতে জ্যোতির্ময়ী”; এমনটাই বলছেন অনেক বিজেপি নেতা নেত্রী। জ্যোতির্ময়ী শিকদারকে রাজ্য কমিটিতে নেওয়ায়; অনেক বিজেপি নেতা নেত্রীর পাশাপাশি; বহু কর্মী সমর্থক ক্ষুব্ধ। কেন জ্যোতির্ময়ী কে সরাসরি রাজ্য কমিটিতে ? প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

আরও পড়ুনঃ বিজেপির ১০৫ জনের নতুন রাজ্য কমিটিতে শোভন, জায়গা হয়নি বৈশাখী, চন্দ্র বসুর

২০০৪ সালে চতুর্দশ লোকসভা নির্বাচনে; কৃষ্ণনগর লোকসভা থেকে; সিপিএমের টিকিটে বিজেপির সত্যব্রত মুখার্জীকে পরাজিত করে তিনি সাংসদ নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে কৃষ্ণনগর থেকে দ্বিতীয়বার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন; তবে জয়লাভ করতে পারেননি। তৃণমূলের তাপস পালের কাছে; তিনি হেরে যান। ২০১৯ সালে তিনি তৃণমূল কংগ্রেসে; যোগদান করেন। ২০২০ তে দিলীপ ঘোষের হাত ধরে; তিনি আসেন গেরুয়া শিবিরে। এসেই সরাসরি জায়গা পেলেন; বিজেপি রাজ্য কমিটিতে।

বিজেপি কর্মী সমর্থকদের অনেকেই বলেছিলেন যে; নেতা নেত্রীদের নিজস্ব ক্ষমতা আছে; নিজের জনবল কাছে; মানুষের সমর্থন আছে; সেই প্রভাবশালী নেতাদের নেওয়া হোক। কিন্তু যাদের কিছুই নেই; শুধুই ক্ষমতার লোভে আসছেন; তাঁদের যেন নেওয়া না হয়। তাঁরা উদাহরণ দিয়েই বলেছিলেন। জ্যোতির্ময়ী শিকদার; যিনি সিপিএমের টিকিটে জিতে একবার সাংসদ হন; ২০১৯ এ যোগ দেন তৃণমূলে; আবার ২০২০ তে বিজেপির পালে হাওয়া দেখে যোগ দেন গেরুয়া শিবিরে।

আরও পড়ুনঃ কঙ্গনাকে কেন নিরাপত্তা; প্রশ্ন মহুয়ার, প্রশান্ত কিশোরকে কেন নিরাপত্তা দিচ্ছেন মমতা; পাল্টা বিজেপি

জ্যোতির্ময়ীর না আছে নিজস্ব ক্ষমতা; না আছে নিজের জনবল; না আছে মানুষের সমর্থন। এদের দলে নিলেও যেন বিধানসভার টিকিট না দেওয়া হয়; দাবি তুলেছিলেন বিজেপি কর্মী সমর্থকদের। সেই জ্যোতির্ময়ীকে এবার রাজ্য কমিটির সদস্য করল বিজেপি।

দলে দলে বিরোধী দলের নেতারা; মমতার তৃণমূলে যোগ দেন। ছাঁকতে পারে নি তৃণমূল। যা হবার তাই হয়েছে। জেলায় জেলায় গোষ্ঠী দ্বন্দ্বে; জেরবার তৃণমূল। পুরনো ও আদি কর্মীরা; মুখ ফিরিয়েছেন দল থেকে। সেই একই ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি; কি হতে চলেছে বিজেপিতেও। আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন; নিচুতলার কর্মীরা। ‘মমতার মত ভুল করবেন না’; রাজ্য বিজেপি নেতাদের সাবধান করে দিচ্ছেন; দলের কর্মী সমর্থকরা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন