“কামদুনি, গেদে, গাইঘাটা, সৎ সাহস থাকলে রাজ্যের ধর্ষিতা নারীদের জন্য হাঁটুন মমতা”

2751
"কামদুনি, গেদে, গাইঘাটা, সৎ সাহস থাকলে রাজ্যের ধর্ষিতা নারীদের জন্য হাঁটুন মমতা"

“কামদুনি, গেদে, গাইঘাটা, সৎ সাহস থাকলে; রাজ্যের ধর্ষিতা নারীদের জন্য হাঁটুন মমতা”। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে; শনিবার এইভাবেই চ্যালেঞ্জ জানালেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। “সাহস থাকলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উত্তর প্রদেশের জন্য নয়; পশ্চিমবঙ্গের কামদুনির জন্য হেঁটে দেখাক। যদি উত্তর প্রদেশের জন্য ৪ কিলোমিটার হেটে থাকেন তো; তো পশ্চিমবঙ্গের জন্য ৪,০০০ কিলোমিটার; হাটতে হবে আপনাকে”। শনিবার বলেন বিজেপি নেত্রী লকেট।

আরও পড়ুনঃ “পুলিশ দিয়ে জোর করে ধর্ষিতার মৃতদেহ পুড়িয়ে দেওয়ার দৃষ্টান্ত, সবার আগে দেখিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়”

শনিবার কলকাতার বিড়লা তারামণ্ডল থেকে; প্রতিবাদ মিছিলে অংশ নেন মুখ্যমন্ত্রী। জওহরলাল নেহরু রোড হয়ে, পার্ক স্ট্রিট মেট্রো স্টেশনের পাশ দিয়ে; মমতার মিছিল পৌঁছায় মেয়ো রোডে, গান্ধী মূর্তির পাদদেশে। সেখানেই মঞ্চে ভাষণ দেন মমতা। সভামঞ্চ থেকে বিজেপিকে চাঁচাছোলা ভাষায়; আক্রমণ করেন তিনি। তারই পাল্টা মমতাকে আক্রমণ করলেন লকেট।

আরও পড়ুনঃ বাংলায় চিটফান্ড জালিয়াতি মামলা, পিনকন চিটফান্ড মামলায় ৮ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

৭ বছরেও শাস্তি হয় নি বাংলার কামদুনি কাণ্ডে; উত্তরপ্রদেশের হাথরসে প্রতিবাদ আন্দোলন তৃণমূলের। শুক্রবার হাথরসে নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখার করার উদ্দেশে রওনা দেন; তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন; কাকলি ঘোষ দস্তিদার; প্রতিমা মণ্ডল ও মমতা ঠাকুর। গ্রামে ঢোকার আগেই; তৃণমূলের প্রতিনিধি দলকে, আটকে দেয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। তৃণমূলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে; ধস্তাধস্তিও হয় পুলিশের। হাথরস কাণ্ডের সেই প্রতিবাদ; এবার আছড়ে পরে কলকাতায়। শনিবার প্রতিবাদ মিছিল করেন মমতা। রাজপথে হাঁটলেন, তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিকে গেদে থেকে মধ্যমগ্রাম, রাজ্য জুড়ে ঘটে চলা নৃশংস গণধর্ষণের প্রতিবাদে; রাস্তায় নেমেছিল বুদ্ধিজীবীরা। কিন্তু তখন মমতা কেন আন্দোলনে নামেন নি? প্রশ্ন তুলেছেন লকেট। রাজ্যে ধর্ষণ ঘটলে কি মমতা দেখতে পান না? এদিন প্রশ্ন তোলেন লকেট।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন