পুরভোটে ইভিএম নয়, ভোট হবে ব্যালটে

3510
পুরভোটে ইভিএম নয়, ভোট হবে ব্যালটে/The News বাংলা
পুরভোটে ইভিএম নয়, ভোট হবে ব্যালটে/The News বাংলা

পুরভোটে ইভিএম নয়, ভোট হবে ব্যালটে।পুরভোটের নির্ঘণ্ট ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়েছে। আগামি এপ্রিলে পুরভোট হবে কলকাতা, হাওড়া সহ একাধিক পুরসভায়। রাজ্যের শাসকদল সবরকমভাবে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। পিছিয়ে নেই বিজেপিও। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার শেষে ও রমযান মাস শুরুর আগে পুরভোট শুরু হবে। কলকাতা ও হাওড়াও এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহেই হবে নির্বাচন।

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি রাজ্যে ১৮ টি আসন নিয়ে প্রধান বিরোধী শিবির হিসেবে মাথা তুলে দাঁড়ানোর পরেই শাসকদল অভিযোগ তুলেছিল ইভিএম-এ কারচুপি হয়েছে তাই বিজেপি এইভাবে কেন্দ্রে জিতে ফের ক্ষমতায় ফিরেছে। এবার সেই ঝঁকি নিতে চাইছে না রাজ্য সরকার। লোকসভা নির্বাচনের পল ঘোষণার পরেই মমতা দাবি করেছিলেন এবার থেকে রাজ্যে সব ভোট হবে ব্যালটে। তাই এবার পুরভোটে ইভিএম-এর বদলে ব্যালটে ভোট করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন পার্ক সার্কাসে অব্যাহত মহিলাদের আন্দোলন, পাশে দাঁড়ালেন সমাজকর্মী মেধা পাটেকর

শনিবার কলকাতাসহ রাজ্যের ৯৩ টি পুরসভা এবং পুরনিগমের ভোটের জন্য আসন সংরক্ষণের খসড়া তালিকা প্রকাশ হয়। কলকাতা পুরনিগমের খসড়ায় তালিকায়
দেখা যাচ্ছে ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডটি তপশিলি প্রার্থীর জন্য সংরক্ষিত। ওই ওয়ার্ড থেকে গতবার কাউন্সিলর হয়েছিলেন; স্বপন সমাদ্দার। বেলেঘাটার অত্যন্ত প্রভাবশালী এই নেতা দীর্ঘদিনের কাউন্সিলর এবং মেয়র পারিষদ। সংরক্ষণের জন্য এবার তপনবাবু নিজের ওয়ার্ড থেকে; দাঁড়াতে পারবেন না। অন্যদিকে; ৯৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রতন দে। তিনিও কলকাতা পুরসভার মেয়র পারিষদ।

৯৩ নম্বর ওয়ার্ডটি এবার মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত। তাই ওই ওয়ার্ডে দাঁড়াতে পারবেন না রতনবাবু। একইভাবে ৯০ নম্বর ওয়ার্ডটিও মহিলা সংরক্ষিত হওয়ায় এবার সেখানে দাঁড়াতে পারবেন না; বিদায়ী কাউন্সিলর তথা মেয়র পারিষদ বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায়। তৃণমূলের আইনজীবী সেলের এই নেতাকে এবার অন্য ওয়ার্ড থেকে দাঁড়াতে হবে। মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত হয়েছে; ৯৬ নম্বর ওয়ার্ডটিও। ওই ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর হেভিওয়েট মেয়র পারিষদ দেবব্রত মজুমদার এবার; নিজের ওয়ার্ড থেকে দাঁড়াতে পারছেন না।

চার মেয়র পারিষদের পাশাপাশি তৃণমূলের আরও এক হেভিওয়েট নেতা তথা রাজ্যসভার সাংসদ ডা: শান্তনু সেনের ওয়ার্ডটিও এবার মহিলাদের জন্য এবার কলকাতা পুরনিগমের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না শান্তনুবাবু। তপশিলি প্রার্থীদের জন্য মোট ৮ টি ওয়ার্ড সংরক্ষিত ঘোষণা করা হয়েছে। সেগুলি হল ৩৩, ৫৮, ৭৮,১০৭, ১১০, ১২৭, ১৪১ ও ১৪২।

৩৩ নম্বর ওয়ার্ড তপশিলি মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত হওয়ায়; ওই ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর পবিত্র বিশ্বাস সেখান থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না। খিদিরপুরের প্রয়াত বাম নেতা কলিমুদ্দিন শামসের পুত্র নিজামুদ্দিন শামস ৭৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন। একই কারণে; তিনিও এবার সেখান থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না।

১১০ নম্বর ওয়ার্ডটি এবার তপশিলি প্রার্থীদের জন্য সংরক্ষিত। সেই কারণে; ওই ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না অরূপ চক্রবর্তী। মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত হওয়ায়; ৫২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সন্দীপন সাহা; ৫৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অরুণ দাস, ৮৭ নম্বর ওয়ার্ডের সুব্রত ঘোষ, ৯৯ নম্বর ওয়ার্ডের দেবাশিস মুখোপাধ্যায় ও ১০৫ নম্বর ওয়ার্ডের তরুণ মুখোপাধ্যায় এবার; নিজেদের ওয়ার্ড থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না।

আগামীকাল যে খসড়া তালিকা প্রকাশিত হবে; তাতে আপত্তি জানানো যাবে ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত। ১০ ফেব্রুয়ারি চূড়ান্ত সংরক্ষণ তালিকা প্রকাশ পাবে। এই খসড়া তালিকা তৈরি করেছে; দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলাশাসকের দপ্তর।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন