সময়মত ভোট সমীক্ষা করে কলকাতা পুরসভা জয়ে এগিয়ে কারা

2724
সময়মত ভোট সমীক্ষা করে কলকাতা পুরসভা জয়ে এগিয়ে কারা/The News বাংলা

সময়মত ভোট সমীক্ষা করে কলকাতা পুরসভা জয়ে এগিয়ে কারা। এই প্রশ্নটি এখন সবার মুখেমুখে লোকসভা ভোটের পর কলকাতায় তৃণমূল বিজেপি ভোট অঙ্ক; ঠিক কি দাঁড়িয়েছে, সেটাই এখন বড় প্রশ্ন সবার। সময়মত ভোট সমীক্ষা করে; কলকাতা পুরসভা জয়ে এগিয়ে তৃণমূল; এমনটাই বলছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। পুরভোটে বেশ কিছু ওয়ার্ডে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হলেও; শেষপর্যন্ত কলকাতায় তৃণমূল বিজেপি লড়াইয়ে শেষ হাসি যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই হাসতে চলেছেন; সেটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

২০২১-এ বিধানসভা ভোটের আগে আরও এক বড় লড়াই অপেক্ষা করে আছে; বিজেপি ও তৃণমূলের জন্য। ২০২১-এ ভোটের আগেই ‘মিনি বিধানসভা নির্বাচনে’ বিজেপির মুখোমুখি হতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলকে। ২০২০-র পুরসভা নির্বাচনে জিততে; তাই এখন থেকেই অঙ্ক কষছে তারা। তা নিশ্চিত করতেই তৃণমূল কংগ্রেস এক গোপন সমীক্ষা চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়; পুজোর পর গত অক্টোবর মাস থেকেই।

রাজ্যে ১০৭টি পুরসভা এবং কলকাতা পুর নিগমের ভোট আগামী এপ্রিল মে তেই। তার আগে তৃণমূলকে চাপে ফেলে দিয়েছে; লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল। লোকসভা নির্বাচনের ফল দেখিয়েছে; একাংশের সমর্থন হারিয়েছে তৃণমূল। আর সেই সুযোগ নিয়ে ভোটে; ফায়দা তুলেছে বিজেপি। তাই পুরসভা ভোটের অনেক আগেই জল মেপে নেয় তৃণমূল।

তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব সমর্থনের ভিত্তি এবং সংগঠন নিয়ে মত যাচাই করতে একটি সমীক্ষা করার সিদ্ধান্ত হয়। ২০২০ সালে নির্বাচনের আগে এই সমীক্ষা চালিয়ে তৃণমূল বুঝে নিতে চেয়েছিল; জনমত কোন দিকে। সেই কারণেই পিকে অর্থাৎ প্রশান্ত কিশোর তাঁর ‘আই-প্যাক’ টিমকে নামিয়ে দিয়েছিলেন সমীক্ষার ময়দানে।

২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের আগে এই পুরসভা নির্বাচনকে ‘মিনি বিধানসভা নির্বাচন’ হিসাবে দেখছে তৃণমূল কংগ্রেস। ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর সেই ‘মিনি বিধানসভা নির্বাচন’ জিততে চাইছেন যেকোন মূল্যে। সেই কারণেই তিনি সমীক্ষা চালানোর পরামর্শ দেন তৃণমূল নেতৃত্বকে। জনমত কী চাইছেন, কোথায় তাঁদের অসুবিধা, তা জানাই আশু প্রয়োজন বলে মনে করেছিলেন পিকে।

সমীক্ষা চালিয়ে প্রশান্ত কিশোর জেনেছেন; দলের ভিত্তি, স্থানীয় সমস্যা, কাউন্সিলরদের ভাবমূর্তি, স্থানীয়দের অভিযোগ এবং সেই অঞ্চলগুলিতে বিজেপি কতটা প্রভাব বিস্তার করতে পেরেছে। ২০১৯ সালের নভেম্বর থেকে সমীক্ষা শুরু হয়। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে সমীক্ষা শেষ হয়।

এই সমীক্ষা রিপোর্টের উপর ভিত্তি করেই আসন্ন নির্বাচনের জন্য ঘূঁটি সাজাচ্ছে তৃণমূল। পিকে ভোট-কৌশল রচনা করে ফেলেছেন। সেই আঙ্গিকেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী এবং টিএমসি সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে মিউনিসিপাল নির্বাচনের খসড়া কৌশল প্রস্তুতের প্রস্তাব দিয়েছেন প্রশান্ত কিশোর।

জানা গেছে, রিপোর্টে যে কাউন্সিলরের নিশ্চিত হারের আশঙ্কা; তাকে টিকিট দেওয়া হবে না। যাদের পারফরম্যান্স কিছুটা ভালো; তাদের ওয়ার্ডে তখনই যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ শুরু করা হয়েছে। জল, আলো আর রাস্তা; মানুষের প্রধান তিনটি চাহিদার উপর জোর দিয়ে; বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে মানুষের ক্ষোভ সামলে দিয়েছেন পিকে। সবমিলিয়ে কলকাতা পুরভোটে এডভান্টেজ মমতার তৃণমূলের।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন