“ভাইপো না বলে সাহস থাকলে নাম বলুন”, বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ কুণালের

2192
"ভাইপো না বলে সাহস থাকলে নাম বলুন", বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ কুনালের/The News বাংলা

“ভাইপো না বলে সাহস থাকলে নাম বলুন”; বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ কুণালের। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে আ’ক্রমণ করায়; বিজেপির তীব্র সমালোচনা করলেন কুণাল ঘোষ। রবিবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনে; বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ করে তৃণমূল মুখপাত্র বলেন; “যদি সাহস থাকে তাহলে ভাইপো না বলে; নাম উচ্চারণ করুন”। কুণালের প্রশ্ন, “রাজনীতিবিদের পরিবারে; রাজনীতিবিদ হতে পারেন না?” তাঁর কটাক্ষ, “বিসিসিআই-য়ে কৈলাশের ভাইপো বসে আছেন”। কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে এবার নজিরবিহীনভাবে; আ’ক্রমণ করল তৃণমূল কংগ্রেস। রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করে, কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে নি’শানা করেন; তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তিনি বলেন, “তৃণমূলের সঙ্গে রাজনীতিতে এঁটে উঠতে না পেরে; দলীয় নেতাদের চরিত্র হননের চেষ্টা করছেন; কৈলাশ বিজয়বর্গীয় সহ বিজেপি নেতারা”। পাল্টা বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন; “সবাই জানে ভাইপো কে; কুণালের যা করার করে নিন”।

ভাইপো’ বলে নাম না করে; তৃণমূলের বিশিষ্ট যুবনেতা ও সাংসদকে আক্রমণ করা হচ্ছে বলেও; অভিযোগ তোলেন তিনি। কুণাল ঘোষ সরাসরি কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে চ্যালেঞ্জ করে বলেন; “সাহস থাকলে ‘ভাইপো’ কথাটা না বলে; নাম করে বলুন”। সর্বক্ষেত্রে বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতা মিথ্যা প্রচার ও কুৎসা রটাচ্ছেন বলেও; অভিযোগও তোলেন তৃণমূল মুখপাত্র।

আরও পড়ুনঃ ভোট প্রচারে প্রাথমিক শিক্ষকদের মাঠে নামাচ্ছে তৃণমূল, “ভ’য় দেখিয়ে” অভিযোগ বাম বিজেপির

কুণালের দাবি, “গতকাল কৈলাশ বিজয়বর্গীয় রামনগরে; মিথ্যে ভাষণ দিয়েছেন। তৃণমূলের যুবনেতাকে নি’শানা করে; মিথ্যাচার করেছেন”। তাঁর মতে, “রাজনীতিতে পাল্লা দিতে না পারায়; চরিত্রহনন করছেন। বিজেপি ভয় পাচ্ছে বলেই; যুবনেতাকে আ’ক্রমণ করছে”। কৈলাশ-পুত্র আকাশকে হা’তিয়ার করেও; বিজেপিকে নি’শানা করেন কুণাল। বলেন, “কৈলাস-পুত্র আকাশ বিজয়বর্গীয়; পুরকর্মীদের মে’রেছিলেন। আকাশ বিজয়বর্গীয় নিজেও তো; বিজেপির বিধায়ক। গু’ণ্ডামি করে গ্রে’ফতার হয়েছিলেন আকাশ”।

সারদা ও নারদা কাণ্ডের তদন্ত নিয়েও; মিথ্যে তথ্য দেওয়া হচ্ছে বলেও; অভিযোগ তোলেন কুণাল ঘোষ। তাঁর দাবি, তৃণমূলের উন্নয়নমূলক কাজের সঙ্গে পাল্লা দিতে না পেরেই; নে’তিবাচক রাজনীতি করছে বিরোধীরা। তৃণমূল কংগ্রেস কখনওই; ব্যক্তিগত আক্রমণ ও চরিত্র হননের রাজনীতি করে না। তবে বিরোধীরা যদি এসব করতে থাকে; তাহলে মিষ্টি খাওয়াবে না তৃণমূল। পালটা রুখে দাঁড়াবার ক্ষমতা আছে; রাজ্যের শাসকদলের। কখনওই ব্যক্তি আ’ক্রমণ উচিত নয়; বলে জানান তিনি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন