শরীরে পুলিশের জিপিএস লাগানো, লন্ডন ব্রিজে তাণ্ডব চালাল আততায়ী

225
পুলিশের গুলিতে নিহত হয় আততায়ী/The News বাংলা
পুলিশের গুলিতে নিহত হয় আততায়ী/The News বাংলা

কর্মব্যস্ত লন্ডন ব্রিজে ছড়াল আতঙ্ক। ছুরি নিয়ে লন্ডন ব্রিজে; হামলা চালাল এক আততায়ী। তাকে দেখেই পুলিশ; সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। বেশ কয়েকজন জখম হয় এই ঘটনায়। এখনও পর্যন্ত মৃত ২। জখম অবস্থাতেই; তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল বলে জানা যায়। এখনও বেশ কয়েকজন ভর্তি হাসপাতালে। লন্ডন ব্রিজের উত্তরে একটি অনুষ্ঠান চলছিল। সেই সময়ই হামলা চালায় ওই আততায়ী। পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হয় সে।

ইতিমধ্যেই আততায়ীকে চিহ্নিত করেছে পুলিশ। উসমান খান নামক ওই যুবক; এর আগেও জঙ্গি হামলা চালিয়ে ছিল বলে জানা যায়। একবছর জেলে থাকার পর; শর্ত সাপেক্ষে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। লন্ডন পুলিশ জানিয়েছে; নিহত উসমানকে ২০১২ সালে জঙ্গি হামলার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

আরও পড়ুনঃ প্রিয়াঙ্কা রেড্ডির পর উদ্ধার আরও এক মহিলার দগ্ধ দেহ

জানা যায়; ছাড়া পাওয়ার পর থেকেই তার গতিবিধির উপর নজর চজিল লন্ডন পুলিশের। কিন্তু তারপর কীভাবে শুক্রবার এই হামলা চালাল ওই যুবক; তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ওই ব্যক্তির হামলার উদ্দেশ্য কি ছিল তা এখনও জানা যায়নি।

এই ঘটনার পেছনে অন্য কারোর হাত ছিল কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়। এরমধ্যে পুলিশ যুবকের বাড়িতেও তদন্ত চালিয়েছে। জানা যায়; যুবকের গায়ে জিপিএস লাগানো ছিল। এর সাহায্যেই তার উপর নজর রাখত পুলিশ। কিন্তু, সেই অনুযায়ী কেন কাজ হল না তা নিয়েও তদন্ত করা হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ প্রিয়াঙ্কা ধর্ষণ হত্যা মামলা, মহম্মদ পাশার সঙ্গে অপরাধী শিবা, নবীন ও কেশাভুলু

এদিনের ঘটনা উস্কে দিল ২০১৭ সালে লন্ডন ব্রিজে হামলার স্মৃতি। একটি বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ি ফুটপাথের উপর উঠে পড়ায় অন্তত ৮ জনের প্রাণহানি ঘটেছিল। পরে জানা যায়, সেটি একটি নাশকতা, যুক্ত ছিল ৩ জন সন্ত্রাসবাদী। ফলে এদিনের ছুরি হামলার পর সেই আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন