‘তোদের দুর্গার অবস্থা দেখ’, বিজেপি মহিলা কর্মীর ফেসবুক পোস্টে ক্ষুব্ধ তৃণমূল যাচ্ছে পুলিশের কাছে

5511
'তোদের দুর্গার অবস্থা দেখ', বিজেপি মহিলা কর্মীর ফেসবুক পোস্টে ক্ষুব্ধ তৃণমূল যাচ্ছে পুলিশের কাছে
'তোদের দুর্গার অবস্থা দেখ', বিজেপি মহিলা কর্মীর ফেসবুক পোস্টে ক্ষুব্ধ তৃণমূল যাচ্ছে পুলিশের কাছে

একটা ফেসবুক পোস্ট; আর তার জেরেই তুলকালাম রাজ্য রাজনীতি। শুরু হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপি কর্মী সমর্থকদের; কাদা ছোড়াছুঁড়ির খেলা। ‘তোদের দুর্গার অবস্থা দেখ’; বিজেপি মহিলা কর্মীর ফেসবুক পোস্টে; ক্ষুব্ধ তৃণমূল যাচ্ছে পুলিশের কাছে। দুদিন আগেই, ভবানীপুর নির্বাচনের প্রচারে; ভবানীপুরের অন্তর্গত একবালপুর এলাকায়; ষোলোআনা মসজিদে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে পৌঁছে, বিভিন্ন মসজিদের ইমামদের সঙ্গে; একটি একান্ত বৈঠক করেন তিনি। আর এই বৈঠকের ভিডিও ভাইরাল হতেই; সমালোচনায় নামে বিজেপি।

এদিকে, এই নিয়ে কটাক্ষ করে ফেসবুক পোস্ট করেন; বিজেপি সমর্থক মীনু খাতুন। তার ফেসবুক লিঙ্ক; https://www.facebook.com/minu.khatun.5836। নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে, তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দিয়ে লেখেন; ‘তোদের দুর্গার অবস্থা দেখ’। আর এই পোস্টের জেরেই; বেজায় ক্ষুব্ধ তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। দলের অনুমতি পেলেই তারা; থানায় অভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন।

'তোদের দুর্গার অবস্থা দেখ', বিজেপি মহিলা কর্মীর ফেসবুক পোস্টে ক্ষুব্ধ তৃণমূল যাচ্ছে পুলিশের কাছে
এই পোস্টের জন্যই ক্ষুব্ধ তৃণমূল নেতা কর্মী সমর্থকরা

আরও পড়ুন; ভবানীপুর ভোটের আগে মমতা কেন মসজিদে, ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এনে প্রশ্ন অমিতের

“১৬ আনা মসজিদে তাঁর যাওয়া; কোনও হঠাৎ সিদ্ধান্ত ছিল না; ভোট চাইতেই মসজিদে গিয়েছিলেন মমতা”। একবালপুরের ষোলো আনা মসজিদে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যাওয়া নিয়ে; কটাক্ষ করে টুইট করেছেন বিজেপি নেতা অমিত মালব্য। মমতার মসজিদে যাওয়া ও বৈঠকের ভিডিও শেয়ার করে, তাঁর কটাক্ষ, “৭৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভোট চাইতেই; মসজিদে গিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। আর কিছুদিনের মধ্যেই, তাঁকে দেখা যাবে; বুথে বুথে ঘুরতে”।

আরও পড়ুন; পাকিস্তানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ১৪-১৫ জন বাংলাভাষী জঙ্গি অধরা, পুজোর মুখে চিন্তায় প্রশাসন

ভবানীপুরে তৃণমূলের প্রার্থী; স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী হাইকোর্টের আইনজীবী; ও বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল। অমিত মালব্যর দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এবারের লড়াইটাও; নন্দীগ্রামের মতোই বেশ কঠিন। আর জয়ের ব্যাপারে; মোটেও আশাবাদী নন মমতা; তাই মন্দিরে গিয়ে ওয়ার্ডের ভোট পেতে বৈঠক করতে হচ্ছে। তবে তৃণমূলের তরফ থেকে পরিষ্কার বলা হয়েছে; “বিজেপির মাথায় সাম্প্রদায়িক চিন্তা-ভাবনা ছাড়া আর কিছুই নেই; রাজ্য সরকারের উন্নয়নই মমতাকে জেতাবে”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন