অযোধ্যা নেপালে, রাম নেপালি, দাবি কমিউনিস্ট নেতার

1339
অযোধ্যা নেপালে, রাম নেপালি, দাবি কমিউনিস্ট নেতার

অযোধ্যা নেপালে, রাম নেপালি, দাবি কমিউনিস্ট নেতার। ভারত-চিন দুই দেশের মধ্যে এখনও জিইয়ে রয়েছে সীমান্ত সমস্যা। দুই দেশ এখনও আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি। উত্তপ্ত সেই পরিস্থিতিতে; এবার রামকে নিয়ে ছেঁড়ছাড় শুরু হয়ে গেল। নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি দাবি করে বসলেন; রামচন্দ্র ভারতীয় ছিলেন না; ছিলেন নেপালি। অযোদ্ধার অবস্থান নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। তার মতে; ভারতে যে অযোদ্ধা আছে তা আসল নয়; নেপালে রয়েছে আসল অযোদ্ধার অবস্থান।

ভানু জয়ন্তী হিসেবে নিজের বাড়িতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে; ভারতের উদ্দেশ্যে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি। তার অভিযোগ; ভারত সাংস্কৃতিক সীমা লঙ্ঘন করবে বলেই; নকল অযোদ্ধা নির্মান করে আসল বলে চালাচ্ছে ।

এখানেই থামেননি ওলি; তার দাবি; রামচন্দ্রের জন্মস্থান ভারতের অযোদ্ধায় নয়; বীরগঞ্জের থোরিতে। ভারত রামচন্দ্রের অবস্থান নিয়েও মিথ্যে বলে এসেছে এতদিন; তথ্যে বিকৃতি ঘটিয়েছে; অভিযোগ নেপালের প্রধানমন্ত্রীর। নেপালকে সাংস্কৃতিক দিক থেকে ভারত অনেক অত্যাচার করা হয়েছে বলেও; অভিযোগের সুর চড়াল কেপি শর্মা ওলি। এবারেই আসে সেই হাস্যকর মন্তব্য যখানে ওলি বলে বসেন; ভারত যদি রামচন্দ্রকে অযোদ্ধার রাজকুমার বলে দাবি করে; তাহলে তিনি নেপালে কেন এলেন।

তাও আবার বিয়ে করার জন্য। ভারতীয় রাজকুমারের হাতে নয়; আমরা নেপালি রাজকুমারের হাতে সীতাকে তুলে দিয়েছিলাম। অলির এ হেন মন্তব্যের পরেই তাকে পদ থেকে সরানোর দাবি তীব্রতর হয়েছে।

তার পদত্যাগের দাবি তোলা হয়েছে। শাসকদল কমিউনিষ্ট পার্টি তো বটেই; বিরোধীরাও অলির পদত্যাগের দাবি জোরদার করেছে। কারণ ভারত-চিন দুই দেশের মধ্যে উত্তপ্ত এই পরিস্থিতিতে; অলি যেভাবে চিনের দিকে ঘেষছেন তাতে অসন্তুষ্ট দল। তবে অলি নিজের সিদ্ধান্তে অনড়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন