মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় হতাশ, আ’ত্মঘাতী মেধাবী ছাত্রী

1460
মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় হতাশ, আ'ত্মঘাতী মেধাবী ছাত্রী
মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় হতাশ, আ'ত্মঘাতী মেধাবী ছাত্রী

মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় হতাশ; আ’ত্মঘাতী মেধাবী ছাত্রী। করোনা আবহে বাতিল হয়ে গেছে; মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক। রাজ্যের কয়েকলক্ষ ছেলে মেয়ের মত; কোচবিহারের দিনহাটার কিশোরী বর্ণালী বর্মন-এর; জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা মাধ্যমিক বাতিল হয়ে গেছে। ফলে হাতাশা ও অবসাদে ভুগতে শুরু করেছিল; দিনহাটার এই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। ধারণা হয়েছিল, জীবনের তার আর কোনও স্বপ্নই; হয়তো পূরণ হবে না। শেষে পরীক্ষা বাতিলের একদিনের মধ্যে; নিজেকেই শেষ করে ফেলল মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী বর্ণালী। ঘর থেকে উদ্ধার হল; তার নিথর ঝুলন্ত দেহ।

কোচবিহারের দিনহাটার আটিয়াবাড়ি আম্বালি বাজারের বাসিন্দা; মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী বছর ষোলোর বর্ণালী বর্মন। চলতি বছরে মাধ্যমিক পরীক্ষা জন্য; প্রস্তুতিও নিচ্ছিল সে। দিনরাত পড়াশোনায় ডুবে থাকত। পরীক্ষায় ভাল ফল করে, জীবনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে; বাবার পাশে দাঁড়াতে চেয়েছিল সে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে, সোমবারই মুখ্যমন্ত্রী মমতা জানিয়েছেন; “চলতি বছরে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল”।

আরও পড়ুন; রাস্তায় বেরিয়ে কোনমতে প্রাণে বাঁচলেন, মদন মিত্রের বাড়িতে হঠাৎ আগুন

বর্মণ পরিবারের দাবি, এই খবর পাওয়াড় পেই; হতাশ হয়ে যায় বর্ণালী। অবসাদে কারও সঙ্গেই; বিশেষ কথা বলছিল না সে। সোমবার রাতে পরিবারের সদস্যরা; বর্ণালীকে খেতে ডাকলেও আসেনি সে। এরপরই তার ঘরের দরজা ভেঙে; উদ্ধার হয় বর্ণালীর ঝুলন্ত দেহ। পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে; দেহের পাশ থেকে একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে লাল কালিতে বর্ণালী লিখেছিল; “তোমার সব কাজের দায়িত্ব; নিতে পারলাম না বাবা”। এরপরই স্থানীয় থানায় খবর দিলে; পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

আরও পড়ুন; বাংলায় ৩ বছরের কন্যাকে যৌ’ন নি’গ্রহ, হাসপাতালে শুয়েই অভিযুক্ত মহম্মদ রেহানকে চিনিয়ে দিল শিশু

করোনা পরিস্থিতিতে পরীক্ষা হবে কি হবে না; এই নিয়ে বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠনের পরেও; রাজ্যের তরফে সাধারণ মানুষের মতামত নেওয়া হয় এবং তারপরই গতকাল মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে তারপর এরকমই এক মর্মান্তিক ঘটনার; সাক্ষী থাকল রাজ্য। একা বর্ণালী-তেই শেষ? না কি, এই ধরণের ঘটনা আরও ঘটবে বাংলায়? এটাই এখন বড় প্রশ্ন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন