“ভাই শকুনিকে দেওয়া গান্ধারীর অভিশাপেই আফগানিস্তানের এই অবস্থা”

5199
ভাই শকুনিকে দেওয়া গান্ধারীর অভিশাপেই আফগানিস্তানের এই অবস্থা
ভাই শকুনিকে দেওয়া গান্ধারীর অভিশাপেই আফগানিস্তানের এই অবস্থা

আফগানিস্থানে চলছে চরম বিশৃঙ্খলা। তালিবানেরা দখল নিয়েছে আফগানিস্থানের; আর তারপর থেকেই শুরু করেছে নিরিহ সাধারণ মানুষের উপরে চরম অত্যাচার। শান্তির খোঁজে পালিয়ে বেড়াচ্ছে আফগান নারী ও পুরুষরা। দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা পুরোপুরি ধ্বংস করে দিয়েছে তালিবানেরা। তারা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে; শুধু মাত্র শরিয়াত আইন চলবে আফগানিস্তানে। আফগানদের এই দুরাবস্থার পিছনে মহাভারতের যোগ আছে বলে; দাবি করেছেন একদল মানুষ। তাদের মতে; ভাই শকুনিকে দেওয়া গান্ধারীর অভিশাপের ফলেই; আফগানিস্তানের এই অবস্থা।

পৌরাণিক মহাকাব্য মহাভারতে উল্লেখ আছে; প্রায় ৫৫০০ বছর আগে রাজা সুবল গান্ধারে শাসন করতেন। তাঁর মেয়ের নাম ছিল গান্ধারী। গান্ধারীর বিয়ে হয় হস্তিনাপুরের রাজপুত্র ধৃতরাষ্ট্রের সঙ্গে। গান্ধারীর ভাইয়ের নাম ছিল শকুনি। মহাভারতের যুদ্ধের পর; নিজের ১০০ পুত্রের মৃত্যুর পরে, গান্ধারী শকুনিকে অভিশাপ দিয়ে বলেছিলেন; “হে গান্ধার নরেশ শকুনি; আমার ১০০ পুত্র মারা গেছে তোমার কুবুদ্ধিতে। তোমার দেশ গান্ধার কোনদিন শান্তিতে থাকবে না।

আরও পড়ুনঃ ভারতের মিলিটারি অ্যাকাডেমিতে ট্রেনিং নেওয়া ‘শেরু’, এখন তালিবানি শীর্ষ নেতা

এই গান্ধার প্রদেশই বর্তমানে আফগানিস্থান। আফগানিস্তানে তালিবান অত্যাচার শুরু হবার পরেই; গান্ধারীর সেই অভিশাপ নিয়ে আবারও আলোচনা শুরু করেছে কিছু মানুষ। তাঁদের দাবি; গান্ধারীর অভিশাপ থেকে গান্ধার আজও বেরোতে পারেনি।

আরও পড়ুনঃ আফগানিস্তানে তালিবান ফিরতেই, কাশ্মীরে শুরু পাক জঙ্গিদের জোরদার উৎপাত

বিজেপি নেতা তথাগত রায়ও এই মতামত প্রকাশ করেছেন তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে তিনি লেখেন; “কৌরব মাতা গান্ধারীর অভিশাপ থেকে স্বয়ং ভগবান কৃষ্ণও নিজেকে রক্ষা করতে পারেনি। গান্ধার কি করে রক্ষা করবে? হাজার হাজার বছর ধরে অভিশাপের বেড়া জালে আটকে থাকা সেদিনের গান্ধার আজকের আফগানিস্থান”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন