“বিজেপিকে দেশ থেকে তাড়াতে রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে”; মমতার ২১শে শপথ

1645
"বিজেপিকে দেশ থেকে তাড়াতে রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে"; মমতার ২১শে শপথ

“বিজেপিকে দেশ থেকে তাড়াতে; রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে”; মমতার ২১শে শপথ। “বিজেপিকে যতদিন না দেশ থেকে তাড়াচ্ছি; রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে”; বুধবার ২১শে জুলাইয়ের ভার্চুয়াল ভাষণে এমন কথাই বললেন; তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে, গোটা রাজ্যে ঘুরে ঘুরে ‘খেলা হবে’ স্লোগানকে; তৃণমূলের ভোটের অস্ত্র করে তুলেছিলেন মমতা। এবার আগামী লোকসভার আগেও; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাজি সেই ‘খেলা হবে’। তৃণমূলের শহিদ দিবস পালনের মঞ্চ থেকেও; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হুঁশিয়ারির সুরে বললেন; “বিজেপিকে যতদিন না দেশ থেকে তাড়াচ্ছি; রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে”।

আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই; নয়া দিল্লি যাচ্ছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। রাজনৈতিক মহলের পর্যবেক্ষণ, আগামী লোকসভা ভোটকে এখন থেকেই; পাখির চোখ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সেই লক্ষ্যেই রাজ্যের গণ্ডি টপকে, গোটা দেশ জুড়ে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভার্চুয়াল বক্তব্য সম্প্রচারের ব্যবস্থা করা হয় তৃণমূলের পক্ষ থেকে। দিল্লিতে বাদল অধিবেশনের মাঝে; শরদ পাওয়ার, পি চিদম্বরমের মতো নেতারা মমতার শহিদ দিবসের বক্তব্য শুনেছেন।

আরও পড়ুনঃ ২১শে জুলাই ১৩ জনের মৃত্যুর জন্য, মমতা ও কংগ্রেস দুষ্কৃতীদেরই দায়ী করে সিপিএম

তাদের সামনেই কিছুদিন আগের সোশ্যালে ট্রেন্ডিং ‘বেঙ্গলি প্রাইম মিনিস্টার’ প্রসঙ্গ উসকে দিয়ে; বিজেপি বিরোধী প্রধান মুখ হওয়ার পথে পা বাড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়; দেশ জুড়ে বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বলেন; “সব নেতাদের বলছি; ফ্রন্ট তৈরি করুন”। এদিন মমতা আরও বলেন; “পরের সপ্তাহে দু-তিনদিনের জন্য দিল্লি যাব। গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের সঙ্গে; বৈঠক করব। শরদ পাওয়ারদের অনুরোধ; দিল্লিতে বৈঠকের আয়োজন করুন। সেই বৈঠকে আমিও থাকব; আলোচনা হোক”।

আরও পড়ুনঃ ২৮ বছর পরেও খুঁজে পাওয়া যায়নি, ২১ শে জুলাইয়ের ১৩ তম শহিদ কে

বিজেপির উদ্দেশ্যে আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়ানোর পাশাপাশি; বিরোধী ঐক্য গড়ার বার্তা দেন মমতা। পেগাসাস ফোন ট্যাপিং বিতর্ক নিয়েও; বিজেপির উদ্দেশ্যে কড়া ভাষায় আক্রমণ শানান তিনি। মমতা আরও বলেন, “কাউকে ফোন করতে পারি না; ফোন ট্যাপ হয়। আমার ফোন ট্যাপ হচ্ছে; রেকর্ড করা হচ্ছে। আমার ফোনের ক্যামেরা; ঢেকে দিতে হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো; ধ্বংস করছে বিজেপি। গণতান্ত্রিক অধিকার; শেষ করে দিচ্ছে ওরা। সরকার থেকে; বিজেপিকে হঠাতেই হবে”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন