মমতার ডাকে দাবি-দাওয়া নিয়ে, নবান্নে ফুরফুরা শরিফের ত্বহা সিদ্দিকি

1685
মমতার ডাকে দাবি-দাওয়া নিয়ে, নবান্নে ফুরফুরা শরিফের ত্বহা সিদ্দিকি
মমতার ডাকে দাবি-দাওয়া নিয়ে, নবান্নে ফুরফুরা শরিফের ত্বহা সিদ্দিকি

মমতার ডাকে দাবি-দাওয়া নিয়ে; নবান্নে ফুরফুরা শরিফের ত্বহা সিদ্দিকি। নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে; মঙ্গলবার হাজির হন পিরজাদা ত্বহা সিদ্দিকি। ফুরফুরা শরিফ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেন তিনি। প্রায় ৩০ মিনিট বৈঠক হয়; দুজনের মধ্যে। বিভিন্ন দাবির কথা জানিয়েছেন ত্বহা সিদ্দিকি। ফুরফুরা শরিফের পীরজাদা ত্বহা সিদ্দিকি; মঙ্গলবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে দেখা করেন। ফুরফুরা শরীফের পরিকাঠামো উন্নয়ন সহ; বিভিন্ন দাবি নিয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন। প্রায় আধঘন্টা ধরে চলা ওই বৈঠকে; কোন রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি বলে; প্রশাসনের তরফে জানানো হলেও; বিধানসভা ভোটের আগে এই বৈঠক ঘিরে শুরু হয়েছে জল্পনা।

ত্বহা সিদ্দিকীর দেওয়া স্মারকলিপি-তে; একাধিক দাবিদাওয়া জানানো হয়েছে। ফুরফুরা চত্বরে হাসপাতাল তৈরি হলেও; তা চালু হয়নি বলে অভিযোগ করা হয়েছে। পাশাপাশি পানীয় জল পৌঁছনোর কাজ; দ্রুত সম্পন্ন করা; হাই-ড্রেনেজের ব্যবস্থা; শাইন-এজ গেট নির্মাণ ইত্যাদির দাবি জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ভোটের আগে বেসুরো তৃণমূল, এক নেতার বাড়িতে পিকের টিম, এক নেতাকে তলব নবান্নে

আসন্ন বিধানসভা ভোটে বাংলায় সংখ্যাল’ঘু ভোট; কার ইভিএমে পড়বে? তা নিয়ে জল্পনা এখন তুঙ্গে। আগে ওই ভোটের সিংহভাগই ছিল; সিপিএমের দখলে। পালাবদলের পর সংখ্যাল’ঘুদের ভরসা; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস। তবে বিধানসভা ভোটে; বাংলায় প্রার্থী দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে মিম। অন্যদিকে, নিজেরাই প্রার্থী দেবার ঘোষণা করেছেন; আব্বাস সিদ্দিকিও। তারপরই বাংলার সংখ্যাল’ঘু ভোটের; গতিপ্রকৃতি বদলে গিয়েছে।

রাজনৈতিক মহলের মতে, সংখ্যাল’ঘু ভোটের কারণে; ত্বহা সিদ্দিকির সঙ্গে খাতির সব রাজনৈতিক দলেরই। সে কারণে মমতা-ত্বহা বৈঠক; আরও প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে। ত্বহা সিদ্দিকি স্বেচ্ছায় এলেন; না তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী ডেকে পাঠিয়েছেন, তা স্পষ্ট নয়। তবে, বিধানসভা ভোটের আগে এই বৈঠক যে; ভোটের দিকে তাকিয়েই হয়েছে; এমনটাই মনে করছে বাংলার রাজনৈতিক মহল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন