শুভেন্দুর পরে নন্দীগ্রামে সভা মমতার, দেখেশুনে আক্রমণের সুবিধা পাবেন তৃণমূল নেত্রী

645
"মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ৫০ হাজার ভোটে নন্দীগ্রামে হারাব, না হলে রাজনীতি ছাড়ব", চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করলেন শুভেন্দু

শুভেন্দুর পরে নন্দীগ্রামে সভা মমতার, দেখেশুনে আক্রমণের সুবিধা পাবেন তৃণমূল নেত্রী। শুভেন্দু অধিকারী নন্দীগ্রামে জনসভা করবেন; আগামী ৮ই জানুয়ারি তারিখে। আসলে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নন্দীগ্রামে; জনসভা করার কথা ছিল আগামী ৭ই জানুয়ারি। তারপর দিন ছিল; শুভেন্দুর সভা। কিন্তু মমতা ওইদিন নিজের সভা; বাতিল করে দেন। তৃণমূল কারণ হিসাবে দেখিয়েছিল; রামনগরের বিধায়ক ও মমতার সভার উদ্যোক্তা অখিল গিরির; করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনাকে। তবে শুভেন্দু দাবি করেছিলেন; “সভা ডেকেও ভয়ে পালিয়ে গেছেন তৃণমূল নেত্রী”। এবার সেই জবাব দিতেই; আগামী ১৮ই জানুয়ারি নন্দীগ্রামে; সভা করার ঘোষণা করেছেন তৃণমূল নেত্রী।

তৃণমুলের নজরে এবার; শুভেন্দুর নন্দীগ্রাম। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমুল সূত্রে খবর; আগামী ১৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামের তেখালিতে সভা করবেন; তৃণমুল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায়। তাঁর আগে আগামী ৮ই জানুয়ারি; নন্দীগ্রামে সভা করবেন; নন্দীগ্রামের প্রাক্তন বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী।

আরও পড়ুনঃ ”মমতার নৌকায় জল ঢুকতে শুরু করেছে, অনেকেই পালাবে”, জল্পনা বাড়ালেন শুভেন্দু

২০০৭ সালের ৭ জানুয়ারি নন্দীগ্রামের গণ আন্দোলনে; ৩ জনের মৃত্যু হয়। এই দিনটিকে স্মরণ করে; প্রতি বছর স্মরণ অনুষ্ঠান করেন শুভেন্দু অধিকারী। এবার সেই একই দিনে নন্দীগ্রামের আন্দোলনকে স্মরণ করে; সভা করবেন মমতা বন্দোপাধ্যায় এমনটাই জানিয়েছিলেন; পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমুলের কো-অর্ডিনেটর অখিল গিরি। পরে অবশ্য মমতার সেই সভা; বাতিল হয়ে যায়।

নন্দীগ্রামের সঙ্গে মমতা ও শুভেন্দু; দুজনের সম্পর্কই দীর্ঘদিনের। কাঁথিতে দাঁড়িয়ে শুভেন্দুকে আক্রমণ করে, সৌগত রায় বলেছেন; “মমতা না থাকলে নন্দীগ্রাম আন্দোলন হত না। নন্দীগ্রাম আন্দোলন আবু সুফিয়ানের মতো; স্থানীয় নেতারা করেছেন। কোনো সরস্বতীর বরপুত্র এসে; সুন্দর দেখতে মানুষ এসে আন্দোলন করেননি”। এখন সেই আন্দোলনের মাটিতে দাঁড়িয়ে; মমতা বন্দোপাধ্যায় নিজে কি বলেন; সে দিকেই চেয়ে রাজনৈতিক মহল।

তবে ৭ জানুয়ারি সকালে; শহিদদের শ্রদ্ধা জানাবেন শুভেন্দু অধিকারী; এই নন্দীগ্রামের মাটিতে দাঁড়িয়েই। এর পাশাপাশি পরের দিন, ৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে তার একটি জনসভা রয়েছে। যেখানে দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায় ও কৈলাশ বিজয়বর্গীর; উপস্থিত থাকার কথা। ৮ তারিখে নন্দীগ্রামে সেই সভা দেখেই, আগামী ১৮ তারিখে; নন্দীগ্রামেই শুভেন্দুকে পাল্টা আক্রমণ করতে পারবেন মমতা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন