নন্দীগ্রামে তৃণমূলের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বিজেপির প্রার্থী কি এক ‘অধিকারী’

576
নন্দীগ্রামে তৃণমূলের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বিজেপি প্রার্থী 'অধিকারী'
নন্দীগ্রামে তৃণমূলের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বিজেপি প্রার্থী 'অধিকারী'

মানব গুহ, কলকাতা: বাংলা বিধানসভা ভোটে; এযাবৎ সবচেয়ে বড় চমক। নন্দীগ্রামে প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই। সোমবার নন্দীগ্রামের সভায় দাঁড়িয়ে; মোক্ষম চাল দিয়েছেন তিনি। নিজেকেই নন্দীগ্রামের প্রার্থী ঘোষণা করলেন। নিজেকেই কেন নন্দীগ্রামের জন্য বাছলেন মমতা; এই নিয়ে যখন উত্তাল বাংলার রাজনৈতিক মহল; তখনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে; দেওয়াল লিখন শুরু হয়ে গেল নন্দীগ্রামে। কিন্তু মমতার বিরুদ্ধে; নন্দীগ্রামে বিজেপির প্রার্থী কে? বিজেপির অন্দরে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে; মমতার বিরুদ্ধে বিজেপির প্রার্থী হবেন; অধিকারী পরিবারের একজন। কিন্তু তাঁর নাম কি? এটাই এখন বড় প্রশ্ন।

আসন্ন বাংলা বিধানসভা ভোটের এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় চমক। ভবানীপুরের পাশাপাশি; নন্দীগ্রামেও তৃণমূল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনৈতিক মহলের একাংশের ব্যখ্যা; ঠিক এমনটাই চেয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অবিভক্ত মেদিনীপুরের অর্থাৎ বর্তমানে দুই মেদিনীপুরের; ৩৫টি আসন দখলে মরিয়া বিজেপি। শুভেন্দু অধিকারীকে সামনে রেখে; যে ভাবে ঘুঁটি সাজাচ্ছিল গেরুয়া শিবির; তা চাপ বাড়াচ্ছিল মমতা ব্রিগেডের।
অন্যদিকে; শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে মেদিনীপুরে তৃণমূলের ভাঙনে; ভোটের আগেই নীচুতলার কর্মীদের মনোবল ভাঙছিল। তা রুখতে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যয় প্রথমেই সরিয়ে দিলেন; একের পর এক শুভেন্দু ঘনিষ্ঠকে। এমনকি কড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে; দীঘা শংকরপুর উন্নয়ন পর্ষদ ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সভাপতির পদ থেকে; সরিয়ে দিয়েছেন দীর্ঘদিনের সহযোদ্ধা, এখনও দল না ছাড়া শিশির অধিকারীকে।

আরও পড়ুন; ‘প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী’ মমতাকে লেটার হেড ছাপিয়ে রাখার চ্যা’লেঞ্জ দিলেন শুভেন্দু

এরপরে; অধিকারী পরিবারের ক্ষমতা খর্ব করে; সৌমেন মহাপাত্র-অখিল গিরি-সুপ্রকাশ গিরিদের গুরুত্ব বাড়ালেন। তারপরেই মাস্টারস্ট্রোক। সবাইকে চমকে দিতে; নিজেকেই প্রার্থী হিসেবে ব্যাটেলফিল্ড নন্দীগ্রামে নামিয়ে দিলেন তিনি। কিন্তু নন্দীগ্রামে বিজেপির প্রার্থী কে? রাজ্য বিজেপি সূত্রের যা খবর; The News বাংলা র কাছে; প্রাথমিক যে খবর এসেছে; তাতে মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী হবেন অধিকারী পরিবারের একজনই।

শিশির; শুভেন্দু; দিব্যেন্দু বা সৌমেন্দু; চারজনের মধ্যেই কেউ নন্দীগ্রামে মমতার বিরুদ্ধে লড়বেন। কেন্দ্র বিজেপি চাইছে; মমতার বিরুদ্ধে শুভেন্দু নিজেই দাঁড়ান। ২০১১ সালে যেমন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য সহ সিপিএমকে; শেষ করে দিয়েছিল তৃণমূল; তেমনই মমতা সহ তৃণমূলকে হারাতে চাইছে কেন্দ্রীয় বিজেপি। তবে; শেষ পর্যন্ত বিজেপি সূত্রে যা খবর; নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী ঠিক করার; শেষ সিদ্ধান্ত ছাড়া হয়েছে; শুভেন্দু অধিকারীর উপরেই।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন